হোমরিভিউস

রিভিউ: বাজারের একমাত্র আকর্ষণ সইফ আলি খান

  | October 26, 2018 14:05 IST
পড়ুন | Read In
Baazaar Review

বাজার ছবিতে রোহন মেহেরা ও সইফ আলি খান। (সৌজন্যে ইনস্টাগ্রাম)

বাজার রিভিউ: রোহন মেহেরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন এবং রাধিকা ও চিত্রাঙ্গদা ছবিতে নিজেদের উপস্থিতি বুঝিয়ে দিতে পেরেছেন।

কাস্ট: সইফ আলি খান,  রোহন মেহেরা, রাধিকা আপ্তে, চিত্রাঙ্গদা 

ডিরেক্টর:  গৌরব কে চাওলা

রেটিং: 5-এ 2 স্টার


নবাগত গৌরব কে. চাওলা পরিচালিত থ্রিলার ছবি বাজার মূলত স্টক মার্কেট কেন্দ্রিক ছবি। ছোট শহরের একটি ছেলে নিজের রোল মডেল কর্পোরেট সম্রাটের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছায় খুব অল্প বয়সে মুম্বাই চলে আসে। তারপর থেকেই স্টক মার্কেট বা শেয়ার বাজারের ওঠানামার মতোই গল্পে বিভিন্ন ঘটনার ঘাতপ্রতিঘাতে চরিত্রদের ওঠানামা শুরু হয়। 


সইফ আলি খানের দুর্দান্ত অভিনয় ছবির মূল আকর্ষণ হলেও স্টোরিলাইন সহজেই অনুমান করে ফেলে দর্শক। দালাল স্ট্রিটের জর্ডন জিকো রূপে সইফ আলি খান সইফ আলি খান ছবির সূক্ষ্ম মুহূর্তগুলোকে নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। তিনি একটা মুখোশের আড়ালে নিজেকে ঢেকে রেখেছেন কিন্তু সেই মুখোশ খসে প্রায়ই তাঁর আসল চেহারা সকলের সামনে ভেসে উঠেছে। সইফ আলি খানের অভিনয় দক্ষতায় সুন্দরভাবে এগিয়ে গেছে বাজারের গল্প।

58s2k2c8বাজার রিভিউ

কিন্তু সইফ আলি খানের দুর্দান্ত অভিনয়ও বাজারের প্রাণকেন্দ্র হয়ে উঠতে পারেনি। বাজারে ক্ষমতা ও অর্থলোভী সইফ আলি খানের সঙ্গে প্রায় তিন দশক আগে মুক্তি পাওয়া অলিভার স্টোনস মাইকেল ডগলাস চার্লি শীনের ওয়াল স্ট্রিটের সঙ্গে সাদৃশ্য খুঁজে পাওয়া গেছে। 

বাজার এমন একটা জগতের গল্প যা জর্ডন বেলফোর্টের সত্য ঘটনা অবলম্বনে তৈরি মার্টিন স্কোরসিসির দ্য উলফ অব ওয়াল স্ট্রিটের (2013) সদৃশ মনে হলেও পুরোপুরি সমকক্ষ হয়ে উঠতে পারেনি। দুর্নীতি, ক্ষমতা লোভ, রেষারেষি, শেয়ার বাজার, মিডিয়ার খেলা সবই এই ছবিতে স্থান পেয়েছে। কখনও সে সব কিছু নিজেদের ছাপ ফেলতে পেরেছে আবার কখনও বা পারেনি।

flp9puqg

বাজার রিভিউ

শকুন কোঠারি একজন ক্ষমতাবান অর্থলোভী বিজনেস টাইকুন যিনি মনে করেন অর্থই ক্ষমতা এবং লোভই ঈশ্বর। এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক রিজওয়ান আহমেদ (নবাগত রোহন মেহেরা) তাঁকে ঈশ্বরজ্ঞানে পুজো করে এবং তাঁকে অনুসরণ করেই নিজের ভবিষ্যৎ গড়তে চায়। কিন্তু পরবর্তীকালে পপরিস্থিতির শিকার হয়ে সে বাস্তবের মাটিতে আছড়ে পড়ে। 

oj8nahho

বাজার রিভিউ

শুরুতে রিজওয়ানের বাবা নিজের কাজের জন্য প্রশংসা হিসাবে একটা ঘড়ি উপহার পান। কাজের জগতে পা রাখার পর প্রিয়া রাই (রাধিকা আপ্তে) নামক এক সহকর্মী তাঁর পথপ্রদর্শক এবং প্রেমিকা হয়ে ওঠে।

শেয়ার বাজারের দালালদের পাল্লায় পড়ে রিজওয়ান হতবাক হয়ে যায়। তাঁর জীবনের বিভিন্ন সমস্যাগুলো ফুটিয়ে তুলতে ব্যাকগ্রাউন্ডে একটা গানের ব্যবহার করা হয়েছে। 

শকুনের মতোই এই ছবিতে রিজওয়ান গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু নবাগত রোহন মেহেরাকে প্রচুর পরিশ্রম সত্ত্বেও চিত্রনাট্যের জন্যই কোনও কোনও অংশে দুর্বল মনে হয়েছে।


প্রিয়া ছাড়াও এই ছবির অন্যতম মূল মহিলা চরিত্র শকুনের স্ত্রী মন্দিরা (চিত্রাঙ্গদা সিং) - যাঁর এমন কোনও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেই যে তাঁকে ছবির কেন্দ্রে রাখবে। তবে সামান্য যেটুকু অংশে তিনি অভিনয় করেছেন তা দিয়েই তিনি ছবিতে নিজের উপস্থিতি বুঝিয়ে দিয়েছেন। 

lb30a3bo

বাজার রিভিউ

বাজার পুরোপুরি মধ্য মানের ছবি। ছবির বিষয়বস্তুর বিচারে এ ছবি আরও ভাল হয়ে উঠতে পারতো কিন্তু তা শেষমেশ আর হয়ে উঠতে পারেনি।



বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement