হোমবলিউড

রিভিউঃ অক্ষয় কুমারের সবচেয়ে বড় দুর্বলতা ধরা পড়ল গোল্ড ছবিটিতে

  | August 15, 2018 12:28 IST
Gold Movie Review

গোল্ডে অক্ষয় কুমার, বিনীত কুমার সিং, অমিত সাধ, কুণাল কাপুর। (সৌজন্যে ইনস্টাগ্রাম)

গোল্ড মুভি রিভিউঃ প্রধান চরিত্রে অক্ষয় কুমারকে ছবির মূল কান্ডারী হয়ে ওঠা প্রয়োজন ছিল কিন্তু তিনি এই ছবির সবচেয়ে বড় দুর্বলতা হয়ে উঠলেন।

কাস্ট: অক্ষয় কুমার, মৌনী রায়, বিনীত কুমার সিং, অমিত সাধ, কুণাল কাপুর।

পরিচালক: রিমা কাগতি

রেটিং: 2 স্টার (5-এর মধ্যে)


রিমা কাগতি রচিত ও পরিচালিত গোল্ড, নিজের ঔজ্জ্বল্য পুরো ছবি জুড়ে ধরে রাখতে ব্যর্থ হল। অক্ষয় কুমার অভিনীত একটা পুরোপুরি ফিকশনাল চরিত্রকে কেন্দ্র করে তৈরি এই স্পোর্টস ড্রামায় 1948 সালে স্বাধীন ভারতের অলিম্পিক হকিতে প্রথম গোল্ড মেডেল জয়ের ঘটনাকে তুলে ধরা হয়েছে।


lljcqemg

সমগ্র ছবির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন তপন দাশ। এছাড়া ছবিতে সকলের প্রধান শত্রু “দুশো সালের দাসত্ব”, যার ফলে সকলের প্রধান শত্রু ইংল্যান্ড, বলিউডের অন্যান্য স্পোর্টস ফিল্মের মতো পাকিস্তান নয়। লন্ডন অলিম্পিক ফাইনালে ভারতীয় দল গ্রেট ব্রিটেনকে হারালে তাই পাকিস্তানী খেলোয়াড়রা ভারতীয়দের সমর্থন করে বিজয় উৎসবে সামিল হয় এবং সেমি ফাইনালে পাকিস্তান নেদারল্যান্ডের বিপরীতে খেললে ভারতীয় দলের ম্যানেজার পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের চেঞ্জিং রুমে গিয়ে অধিনায়ককে অভিনন্দন জানান।  

এবার আসা যাক ছবির বাঙালি কেন্দ্রীয় চরিত্রে। বাঙালি হয়ে নিজের স্বভাব প্রকাশ করবে না এমন হতে পারে না। এমন কী, যে বাঙালি ব্যকরণগতভাবে ঠিক হিন্দি বলতে পারে তাঁর কথাতে থাকতেই হবে মাতৃভাষার টান। স্ত্রীয়ের সঙ্গেও “উরি বাবা”, “গণ্ডগোল”, “আমি জানি” ইত্যাদি বাংলা শব্দে মাঝে মধ্যে কথা না বললেই নয়? চিত্রনাট্য মাফিক অভিনয় করেছেন তপন দাশ। কিন্তু তাঁর স্ত্রীয়ের চরিত্রে মৌনী রায়ের মধ্যে কিছুটা মাছের ঝোল সিনড্রোম থেকে গেছেঃ ফিশ-কে সে উচ্চারণ করেছে ‘ফীশ’, যা বড্ড কানে লেগেছে।

 

8581oku

 

প্রধান চরিত্রে অক্ষয় কুমারকে ছবির মূল কান্ডারী হয়ে ওঠা প্রয়োজন ছিল কিন্তু তিনি এই ছবির সবচেয়ে বড় দুর্বলতা হয়ে উঠলেন। বাস্তব ঘটনার সঙ্গে তাঁর অভিনয়ের বেশ কিছু জায়গায় মিল পাওয়া যায়নি। তপন দাশের চরিত্রটা পুরোপুরি ফিকশনাস। তাঁর স্ত্রী মনবীণার চরিত্রে মৌনী রায় মানানসই। 

গোল্ডে খেলার মাঠের বাইরের বহু দৃশ্য রয়েছে যা বাস্তবের সঙ্গে কোনরকম সামঞ্জস্যহীন। 1948 সালের স্বাধীন ভারতের অলিম্পিক হকি খেলার সঙ্গে এই ছবির মিল খুবই কম। এই ছবিতে বলবীর সিং-এর চরিত্রের নাম ইমতিয়াজ আলি শাহ (অভিনয়ে বিনীত কুমার সিং), যিনি ভারতীয় হকি দলের অধিনায়কের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

 


 

অক্ষয় কুমার ছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করেছেন সানি কৌশল, অমিত সাধ, বিনীত কুমার সিং- প্রত্যেকেই নিজেদের চরিত্রে ভাল অভিনয় করেছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত ছবিতে তাঁদের বিশেষ করণীয় কিছু ছিল না।

সবশেষে বলা যায় গোল্ডের চিত্রনাট্য অত্যন্ত দুর্বল। যে ঘটনা থেকে গল্পটা অনুপ্রাণিত তা ছবিতে পিছনের সারিতেই থেকে গেছে।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement