হোমবলিউড

শ্যুটিং করতে গিয়ে মুখ পুড়ে গেল কোন অভিনেত্রীর! দেখুন কী অবস্থা তাঁর এখন

ভূমি পেডনেকার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের পুড়ে যাওয়া চেহারার একটি ছবি আপলোড করেছে, পরে অবশ্য তা মুছেও ফেলেন। সূত্রের খবর, এই চলচ্চিত্রের মেকআপ খুবই চ্যালেঞ্জিং, লেটেক্স এবং আঠার মতো রাসায়নিকের মিশ্রণ অভিনেতাদের চেহারায় প্রতিদিন ব্যবহার করা হয় কারণ পর্দায় তাঁদের ৮০ বছরের দুই বুড়ির সাজেই দেখা যাবে।

  | April 19, 2019 09:26 IST (নিউ দিল্লি)
Bhumi Pednekar

ষাণ্ড কি আঁখ সিনেমার শ্যুটিং করতে গিয়ে এই অবস্থা হয় অভিনেত্রীর

Highlights

  • ষাণ্ড কি আঁখ সিনেমার শ্যুটিং করছিলেন ভূমি
  • সিনেমার প্রযোজক অনুরাগ কাশ্যপ
  • বয়স্ক শ্যুটারের ভূমিকায় ভূমি

ভূমি পেডনেকার (Bhumi Pednekar) বলিউডের সেই অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন যিনি একটু আলাদা রকমের কাজ করতেই ভালোবাসেন। সম্প্রতি ‘ষাণ্ড কি আঁখ' ((Saand Ki Aankh) চলচ্চিত্রের শ্যুটিং চলাকালীন প্রস্থেটিক্সের কারণে ভূমি পেডনেকারের মুখের চামড়া গুরুতরভাবে পুড়ে যায়। অভিনেতাদের কাছে তাঁদের মুখটা ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ভূমি পেডনেকার, একটু অন্যরকম করেই ভাবেন। পরিচালক তুষার হীরানন্দানি এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা অনুরাগ কাশ্যপের যাতে সমস্যা না হয় সে কারণে তিনি চলচ্চিত্রের শ্যুটিং চালিয়ে যান। চিকিৎসকেরা তাঁর মুখের চিকিৎসার জন্য প্রাকৃতিক সমাধানেই আস্থা রাখতে বলেছেন।

 প্রথম দিন বক্স অফিসে বাজিমাৎ, তবুও ‘কলঙ্ক'-এর ভবিষ্যৎ নিয়ে সন্দেহ

চলচ্চিত্রের একজন সদস্য বলেন, “ভূমি পেডনেকার চন্দ্র তোমারের চরিত্রে অভিনয় করছেন। চন্দ্র এবং তাঁর বোন প্রকাশী (তাপসী পান্নু) পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মহিলা শার্পশ্যুটার। ভূমিকে প্রতিদিন তাঁর চরিত্রের জন্য ৩ ঘন্টা মেকআপ করতে হয় এবং উত্তর প্রদেশের তীব্র রোদে ৮ ঘণ্টারও বেশি শ্যুটিং করতে হয়। তাপ ও ​​ধুলোর মাঝে শ্যুটিং করতে গিয়ে ভূমি এর চামড়া জ্বলে যায়। যদিও এর মাঝেও ভূমি শ্যুটিং চালিয়ে গেছেন।"




ভূমি পেডনেকার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের পুড়ে যাওয়া চেহারার একটি ছবি আপলোড করেছে, পরে অবশ্য তা মুছেও ফেলেন। সূত্রের খবর, “এই চলচ্চিত্রের মেকআপ খুবই চ্যালেঞ্জিং, লেটেক্স এবং আঠার মতো রাসায়নিকের মিশ্রণ অভিনেতাদের চেহারায় প্রতিদিন ব্যবহার করা হয় কারণ পর্দায় তাঁদের ৮০ বছরের দুই বুড়ির সাজেই দেখা যাবে। অত্যধিক তাপমাত্রায় এই শুটিং হয়েছে। যে কারণেই ভূমির চামড়া জ্বলে গেছে। ক্ষুদ্র দানা দানা হয়ে ছড়াতে ছড়াতে সারা মুখেই এরকম হয়ে যায়। কিন্তু অভিনেত্রী এই সমস্যাতেও শ্যুটিং থামাননি।

টিকটক আর নেই, কিন্তু মিম তো আছে! দেখুন নিষিদ্ধ অ্যাপ নিয়ে দুরন্ত রসিকতা

ভূমি পেডনেকার জানান যে, এই বিষয়ে নিজের ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, “একমাত্র জিনিস যা আমি করতে পারি আমার চামড়া এবং মুখ ঠান্ডা করার জন্য, তা হল অ্যালোভেরা ব্যবহার। আমি এটার জন্য কোন ধরনের মেডিকেটেড স্কিন কেয়ার পণ্য ব্যবহার করতেও পারব না। একজন শিল্পী হিসেবে, এই চলচ্চিত্রটির সৃজনশীলতা নিয়ে আমি সম্পূর্ণরূপে সন্তুষ্ট এবং আমি আমার ত্বক পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় গর্বিত আমি, কারণ এই সিনেমায় আমি আমার ১০০% দিয়েই কাজ করছি।”


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement