হোমবলিউড

শোলে মুক্তির ৪৫ বছর! জানতাম না সব রেকর্ড ভাঙবে এই অ্যাকশন ড্রামা: রমেশ সিপ্পি

মূল চিত্রনাট্যে জয়-বীরু আর ঠাকুর প্রাক্তন সেনাকর্মী ছিলেন। কিন্তু প্রোডাকশনে সময় চরিত্রে কিছু অদলবদল করা হয়। জয়-বীরু হয় ছিঁচকে চোর আর ঠাকুর পুলিশকর্তা

  | August 15, 2020 15:54 IST (মুম্বই)
45 Years Of Sholay

শোলে ছবির একটা দৃশ্য।

Highlights

  • ১৫ অগাস্ট, ১৯৭৫-এ মুক্তি পায় এই ছবি।
  • শ্যুটিং অত্যন্ত প্রতিকূল ছিল: রমেশ সিপ্পি
  • একসঙ্গে এতজন তারকাকে নির্দেশ দেওয়া চ্যালেঞ্জিং ছিল: রমেশ সিপ্পি

আজ থেকে ৪৫ বছর আগে মুক্তি পেয়েছিল শোলে (45-years of Sholay)। সেই ছবি তৈরির সময় রমেশ সিপ্পি জানতেন না, তাঁর এই অ্যাকশন ড্রামা সব রেকর্ড ছাপিয়ে যাবে। খানিকটা পরীক্ষামূলক জ্যঁর হিসেবে শোলে নির্মাণ করেন তিনি (Director Ramesh Sippy)। এই ছবি তৈরির আগে তাঁর পরিচালনায় আন্দাজ আর সীতা অউর গীতা প্রশংসিত হয়েছিল। কিন্তু কোনওটাই অ্যাকশনসমৃদ্ধ ছিল না। তাই হলিউডের ধাঁচে পরীক্ষামূলক ভাবে বলিউডে অ্যাকশন ড্রামা তৈরিতে মনোনিবেশ করেছিলেন সিপ্পি। সেসময় তাঁর ভাগ্য সদয় ছিল। কারণ চিত্রনাট্যকার জাভেদ ও সেলিম এই ছবির স্ক্রিপ্ট নিয়ে দোরে দোরে ঘুরেছেন। দরবার করেছেন মনমোহন দেশাই ও প্রকাশ মেহেরার কাছে। কিন্তু কোনও পরিচালক সেভাবে উৎসাহ দেখায়নি শোলে নির্মাণে। তাই এই ফাঁকা ময়দানে ছবির নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রমেশ সিপ্পি। পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথাই বলেছেন শোলে ছবির পরিচালক।

তিনি বলেছেন, মূল চিত্রনাট্যে জয়-বীরু আর ঠাকুর প্রাক্তন সেনাকর্মী ছিলেন। কিন্তু প্রোডাকশনে সময় চরিত্রে কিছু অদলবদল করা হয়। জয়-বীরু হয় ছিঁচকে চোর আর ঠাকুর পুলিশকর্তা।

রমেশ সিপ্পি বলেন, "১৯৭০ থেকে এই ছবি নির্মাণের কাজে হাত দিয়েছিলাম। প্রি-প্রোডাকশনে সময় লেগেছিল তিন বছর। ১৯৭৩-এ নির্মাণে হাত দিই। আর ১৯৭৫-এ মুক্তি পায় এই ছবি।" সেই ছবি মুক্তির ৪৫  বছরকে স্মরণ করে শুক্রবার পিটিআইয়ের সামনে এভাবে অকপট হলেন রমেশ সিপ্পি।



বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com