হোমআঞ্চলিক

অমিত-লাবণ্য-র যাত্রা শুরু ‘শেষের গল্প’-এর হাত ধরে, সামনে এল ট্রেলার

  | July 04, 2019 19:09 IST
Swastika Film production

অমিত-লাবণ্যের পাশাপাশি এই ছবিতে সমান্তরাল ভাবে বলা হয়েছে আরও এক যুগলের প্রেমের গল্প। তারা আকাশ-কুহু। ওদের জীবনগাথাও অনেকটাই অমিত-লাবণ্যের সঙ্গে মেলে। তারাও কি তাহলে কয়েক দশক আগের অমিত-লাবণ্যের মতোই পথ চলতে চলতে পিছিয়ে পড়বে একে অন্যের থেকে? ৩০ বছর পরে কি পূর্ণতা পাবে অমিত-লাবণ্যের প্রেম? ১৯ জুলাই সব প্রশ্নের উত্তর দেবে ‘শেষের গল্প’।

সাল ১৯২৯। আপাদমস্তক আধুনিক রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তখন মাত্র ৬৭! ওই বয়সে পৌঁছে তিনি লিখেছিলেন ‘শেষের কবিতা।' অমিত-লাবণ্যের মধ্যে ধরেছিলেন চিরন্তন আধুনিক এবং অভিজাত প্রেমকে। যদিও উপন্যাসের শেষে অমিত-লাবণ্য সরে গেছে একে অন্যের থেকে। সেই অমিত-লাবণ্য ফের মুখোমুখি। ৩০ বছর পর। অমিত এখন একটি বৃদ্ধাবাসের দায়িত্বে। আচমকা ছাড়াছাড়ির মতোই এখানে ফের সে মুখোমুখি হারানো প্রেমের। এক ঝলমলে সকালে বৃদ্ধাবাসে পায়ে পায়ে এসে দাঁড়ায় তার হারানো প্রেম লাবণ্য দত্ত। অধ্যাপনা থেকে ছুটি নিয়ে অবসর জীবন কাটাতে সে এসেছে অমিতেরই বৃদ্ধাবাসে। তাদের নতুন করে শুরু হওয়া জীবনকাহিনি নিয়েই জিত চক্রবর্তীর প্রথম ছবি ‘শেষের গল্প' ( ‘Sesher Galpo')। তারই ট্রেলার এবং মিউজিক মুক্তি পেল সম্প্রতি ( Launched Trailer and Music)।

অমিত-লাবণ্যের পাশাপাশি এই ছবিতে সমান্তরাল ভাবে বলা হয়েছে আরও এক যুগলের প্রেমের গল্প। তারা আকাশ-কুহু। ওদের জীবনগাথাও অনেকটাই অমিত-লাবণ্যের সঙ্গে মেলে। তারাও কি তাহলে কয়েক দশক আগের অমিত-লাবণ্যের মতোই পথ চলতে চলতে পিছিয়ে পড়বে একে অন্যের থেকে? একুশ শতকে কি পূর্ণতা পাবে অমিত-লাবণ্যের প্রেম? ১৯ জুলাই সব প্রশ্নের উত্তর দেবে ‘শেষের গল্প'।

জিতের এই ছবিতে অমিত রায়ের ভূমিকায় দেখা যাবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে। লাবণ্য, মমতাশঙ্কর। ট্রেলার লঞ্চের অনুষ্ঠানে উচ্ছ্বসিত মমতাশঙ্কর জানালেন, 'শেষের কবিতা, অমিত-লাবণ্য চিরকালের। তাঁকে আজকের প্রেক্ষাপটে ধরার সাহস দেখিয়েছেন নতুন পরিচালক জিত চক্রবর্তী। এর জন্য ওঁর আলাদা করে ধন্যবাদ পাওনা রয়েছে। একই সঙ্গে আমি আপ্লুত, লাবণ্য চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে। কারণ, যতবার শেষের কবিতা পড়েছি, ততবার নিজেকে লাবণ্যের বাইরে ভাবতে পারিনি। আর আমার স্বামী চন্দ্রোদয় ঘোষও বরাবর বলতেন, পর্দায় কবে লাবণ্য হবে? সেই সাধ আমার তৃপ্ত হল। আজকের লাবণ্য একদম আজকের মতোই আপডেটেড। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিহার করে স্বচ্ছন্দে। 'গণশত্রু'র পর এই ছবিতে আমার অল্প নাচও আছে। নিজের মনের ভেতর লুকিয়ে থাকা লাবণ্যকেই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। দর্শকেরা ভালো বললে বুঝব, আমার কল্পনা প্রাণ পেল এতদিনে।' আর সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়? অমিত রায় হিসেবে তিনি কেমন? প্রশ্ন ফুরোতেই ফের উদ্বেল আধুনিক 'লাবণ্য', 'সৌমিত্রদার সঙ্গে প্রচুর ছবিতে কাজ করেছি। কখনও বাবা। কখনও প্রেমিক। তবে বলতে দ্বিধা নেই, রবি ঠাকুরের অমিত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ছাড়া আর কাউকেই মানায় না।'

১২ বছর ক্যামেরা ফেস করার পর প্রথম পরিচালনাতেই এই বিষয় বাছলেন কেন? সাবলীল উত্তরে জিত জানালেন, শেষের কবিতার আবেদন সার্বজনীন বলে। আর প্রথম ছবি একটু অন্যরকম বিষয় দিয়ে শুরু করব বলে। সৌমিত্র-মমতা জুটিকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত পরিচালক জিতও। তাঁর কথায়, যদিও সৌমিত্রবাবু এবং মমদি রাজি না হলে আমি হয়ত ছবি বানাতামই না তবু কাস্ট করার পর একটু ভয় তো হয়েইছিল। মনে হত, পারব তো ওঁদের সঙ্গে চলতে! কাজ করতে করতে দেখলাম, ওঁরা ভীষণ অ্যাডজাস্টেবল। ছবিতে অনেক বছর পর মমদির অল্প নাচ আছে। আর আজকের অমিত-লাবণ্য সোশ্যাস মিডিয়ায় আসক্ত কিনা, ছবির শুরুতেই তা জানা যাবে। এই দুই তারকা ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করবেন খরাজ মুখোপাধ্যায়, কৃষ্ণকিশোর মুখোপাধ্যায়, পল্লবী চট্টোপাধ্যায়, কল্যাণ চট্টোপাধ্যায়, অর্ণ মুখোপাধ্যায় এবং দুর্গা সাঁতরা।


ছবিতে সুর দিয়েছেন জয় সরকার। কণ্ঠে নচিকেতা চক্রবর্তী, অনুপম রায়, লগ্নজিতা চক্রবর্তী, রূপঙ্কর বাগচি, কৌশিকী চক্রবর্তী। প্রযোজনায় স্বস্তিকা ফিল্ম প্রোডাকশন (Swastika Film Production)। 





বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement