হোমবলিউড

Birthday Special: ‘চোখের বালি’-তেই একমাত্র Topless হয়েছিলেন ঐশ্বর্য রাই

  | November 01, 2019 12:24 IST (কলকাতা)
Birthday

'চোখের বালি'তে চিত্রনাট্যের দাবিতে টপলেস অ্যাশ

কলকাতাও তাঁর জন্মদিন উদযাপন করবে। ফিরে জানবে তাঁর পুরনো ছবির গল্প। ঋতুপর্ণ ঘোষের চোখে কেমন ছিলেন নায়িকা? আরও একবার চোখ বোলাবে সেই খবরে। কারণ, তিনি যে কলকাতার বউমা!  

শ্বশুরমশাই অমিতাভ বচ্চন কলকাতার আদরের জামাইবাবু। বলি দিভা হলেও কলকাতার সঙ্গে তাঁর যে যোগ একেবারেই নেই, বলা যাবে না একথাও। কারণ, সত্যজিৎ রায়ের সমতুল্য প্রয়াত পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষের (Rituparno Ghosh) দুটি ছবি ‘চোখের বালি' এবং ‘রেনকোট'-এ অভিনয় করেছিলেন। তিনি ঐশ্বর্য রাই বচ্চন (Aishwarya Rai)। ঋতু-র সঙ্গে অবশ্য বচ্চন পরিবারের সবাই কাজ করেছেন। তবে ঐশ্বর্যের কাছে ঋতু এতটাই ভরসার পাত্র ছিলেন যে, একমাত্র ‘চোখের বালি'-তে (Chokher Bali) তিনি প্রথম এবং শেষবার টপলেস হয়ে অভিনয় করেন। আজ বচ্চনবধূর জন্মদিন (Birthday)। নিজের মতো করে জন্মদিন কাটাতে ইতিমধ্যেই তিনি অভিষেক, আরাধ্যাকে নিয়ে পাড়ি জমিয়েছেন রোমের পথে। কলকাতাও তাঁর জন্মদিন উদযাপন করবে। ফিরে জানবে তাঁর পুরনো ছবির গল্প। ঋতুপর্ণ ঘোষের চোখে কেমন ছিলেন নায়িকা? আরও একবার চোখ বোলাবে সেই খবরে। কারণ, তিনি যে কলকাতার বউমা!  

thtk998o


অনেক হিন্দি ছবিতেই ঐশ্বর্য শরীরী বিভঙ্গ দেখিয়েছেন। সেই ছবি সঞ্জয় লীলা বনশালির 'হাম দিল দে চুকে সনম'ও হতে পারে। কিংবা 'বান্টি ঔর বাবলি' ছবির আইটেম সং 'কাজরা রে'-তে। কিন্তু টপলেস মানে খালি গায়ে অভিনয়! একটা ছবিতেও হননি তিনি। ব্যতিক্রম ঋতুপর্ণ ঘোষের 'চোখের বালি'। প্রয়াত পরিচালককে একটাই সম্মান এবং ভরসা করতেন যে এই ছবিতে চিত্রনাট্যের দাবি মেনে আদুর গায়ে অভিনয় করেছিলেন অ্যাশ। এই ছবিতে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন রাইমা সেন। বিপরীতে ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, টোটা রায়চৌধুরী। বাংলা না জেনেও বিনোদিনী চরিত্রে তাঁর অভিনয় এতটাই স্বাভাবিক আর প্রাণবন্ত ছিল যে ২০০৩-এ অ্যাশ একাধিক পুরস্কার জিতেছিলেন এই ছবির জন্য। খোলা চুল, কপালে চন্দনের ফোঁটা, চেলি শাড়ি, গলায় সরু সোনার হার, মেকআপহীন সাজ---সব মিলিয়ে বাঙালিনীর জীবন্ত প্রতীক হয়ে উঠেছিলেন অ্যাশ এই ছবিতে।


8nhus5qo



ঋতুর চোখে ঐশ্বর্য এবং তাঁর অভিনয় এতটাই মূল্যবান ছিল যে, ২০০৪-এ ফের তাঁকে নিয়ে একটি হিন্দি ছবি বানান পরিচালক। 'রেনকোট' ছবিতে ঐশ্বর্যের বিপরীতে নায়ক হয়েছিলেন অজয় দেবগন। প্রেম যে সবসময়েই মিলনের পথে হাঁটবে, এমনটা হয় না অনেক সময়েই। পাগলের মতো ভালোবাসেও তাই এক হতে পারেননি মন্নু আর নীরু। কিন্তু, পৃথিবী যে গোল! তাই নিজেদের মতো করে দিন কাটাতে কাটাতেও একদিন ফের ভাগ্যের নির্দেশে এক বৃষ্টিঝরা দিনে মুখোমুখি তারা। সৌজন্যে 'রেনকোট'! ও হেনরির 'গিফট অফ মেজাই' ছোটগল্প অবলম্বনে তৈরি ঋতুর এই ছবি সেরা হিন্দি ছবি বিভাগে জাতীয় পুরস্কার জয়ের পাশাপাশি জিতেছিল একমুঠো আন্তর্জাতিক পুরস্কার। তবে এই ছবিতে অ্যাশ ফের পুরনো নিয়মে আপাদমস্তক ঢাকা!

2haof26o


বাঙালি পরিচালকের ছবিতে ছাড়াও অবাঙালি পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির 'দেবদাস'-এ অ্যাশ গ্রামবাংলার মেয়ে পার্বতী। যিনি দেবদাসের প্রেমে পাগলিনী। অমর কথাশিল্পী শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের শ্রেষ্ঠ উপন্যাসগুলির অন্যতম দেবদাস অবলম্বনে এই ছবিতে দেবদাসের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন শাহরুখ খান। চন্দ্রমূখী মাধুরী দীক্ষিত। এই ছবিতে অ্যাশের অভিনয় সম্পদ হিন্দি ছবির ঐশ্বর্য হলেও ঋতুপর্ণ ঘোষ কিন্তু এই ছবির ততটাও প্রশংসা করেননি। ঋতুর দাবি ছিল, কিংবদন্তী ছবি প্রমথেশ বড়ুয়া-যমুনা বড়ুয়া-চন্দ্রাবতী দেবীর 'দেবদাস' বা পরে বিমল রায় পরিচালিত দিলীপকুমার-সুচিত্রা সেন অভিনীত হিন্দি 'দেবদাস'-এর কাছে এই ছবি কিছুই নয়। এই ছবি মাসে। তাঁর 'চোখের বালি' ক্লাসের। তাই এই দুই ছবিতে ঐশ্বর্যের অভিনয়ের তুলনা করাটাই বাতুলতা। যদিও সঞ্জয়ের দেবদাসের গ্ল্যামারাস সেট, হেভি কস্টিউম, মাধুরী-অ্যাশের নাচ, শ্রেয়া ঘোষালের গানের জোরে সুপারহিট ছবির তকমা পেয়েছিল এই ছবি। 

❤️DolceVita in Rome????✨with Longines ????✨

A post shared by AishwaryaRaiBachchan (@aishwaryaraibachchan_arb) on


এতক্ষণে নিশ্চয়ই রোমে পৌঁছে গেছেন ঐশ্বর্য 'বিনোদিনী' রাই বচ্চন। জিয়াদ জার্মানোস ওয়েস্টার্ন গাউনে তিনি আজও সমান মোহময়ী। ৪৬-এ পা দিয়েও সৌন্দর্য তাঁর শাসনে বাঁধা। অনুরাগীদের চোখে তিনি নীলনয়না সুন্দরী। বিশ্বের কাছে তাঁর মহিমা তিনি নিজেই।

Happy birthday Principessa!!! ❤️

A post shared by Abhishek Bachchan (@bachchan) on

ঐশ্বর্যের রূপে মুগ্ধ অভি জন্মদিন উপলক্ষ্যে স্পেশ্যাল গ্রিটিং কার্ড বানিয়েছেন। সেই কার্ডে তিনি স্বীকার করেছেন, তাঁর চোখে অ্যাশ আজও "principessa"! সামান্য ইতালীয় ধাঁচে বানানো এই কার্ডের পটভূমিকায় রোমানীয় শহরের ঝিলিক। গরবিনী ঐশ্বর্য সেজেছেন হালকা গোলাপি জোলকে ভিটার পা-ছোঁয়া অফ শোল্ডার গাউনে।



তবু কলকাতার কাছে, বাঙালির চোখে তিনি শুধুই রাই বিনোদিনী। সেই জন্যেই টলিুডের ইন্ডাস্ট্রি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও আজ সোশ্যালে রাইকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঋতুর কালজয়ী ছবির একটি দৃশ্যের ছবি ইনস্টায় পোস্ট করে।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com