হোমআঞ্চলিক

খালি নেই বাংলার ঝুলি, জাতীয় সম্মান ঘরে আনলেন সৃজিত-চূর্ণী-ইন্দ্রদীপ

  | August 10, 2019 09:28 IST (কলকাতা)
Bengali Cinema

'ত্রয়ী'র জাতীয় পুরস্কার জয়

একমুঠো হিন্দি ছবি ৬৬ তম জাতীয় পুরস্কার ঝুলিতে পুরলেও পিছিয়ে নেই বাংলা সিনে দুনিয়াও। প্রতিবারের মতো এবারেও বিভিন্ন বাংলা ছবি একাধিক বিভাগে পুরস্কার নিয়ে এসে উজ্জ্বল করেছে বাংলার মুখ।

একমুঠো হিন্দি ছবি ৬৬ তম জাতীয় পুরস্কার (66th National Award) ঝুলিতে পুরলেও পিছিয়ে নেই বাংলা সিনে দুনিয়াও (Bengali Cinema)। প্রতিবারের মতো এবারেও বিভিন্ন বাংলা ছবি একাধিক বিভাগে পুরস্কার নিয়ে এসে উজ্জ্বল করেছে বাংলার মুখ। 'চতুষ্কোণ' এবং 'জাতিস্মর'-এর পর তৃতীয় জাতীয় পুরস্কার ঘরে তুললেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়। গত পুজোর ছবি 'এক যে ছিল রাজা'র মাধ্যমে। ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন যীশু সেনগুপ্ত।  এছাড়াও ছিলেন, অপর্ণা সেন, জয়া এহসান, অ়ঞ্জন দত্ত, রুদ্রনীল ঘোষ, অনির্বাণ ভট্টাচার্য। ১৯০৯ সালে ভাওয়াল সন্ন্যাসী মামলাকে পটভূমিকায় রেখে ছবিটি বানিয়েছিলেন সৃজিত। 'তারিখ' ছবিতে সেরা চিত্রনাট্যের জন্য পুরস্কৃত হলেন পরিচালক চূর্ণী গাঙ্গুলি। সঙ্গীত পরিচালক ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্ত তাঁর প্রথম পরিচালিত ছবি 'কেদারা'-র জন্য পেলেন সেরা জুরি সম্মান। এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন কৌশিক গাঙ্গুলি। সমস্ত পুরস্কার প্রাপকদেরই টুইটে অভিনন্দন জানান অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, আবীর চট্টোপাধ্যায়, রাজ চক্রবর্তী সহ বাংলার বহু অভিনেতা-পরিচালক। 

National Film Awards: সেরা অভিনেতা ভিকি-আয়ুষ্মান, একাধিক সম্মান 'পদ্মাবৎ'-এর

দেখুন সেই টুইট:






ফোনে NDTV বাংলা টিম শুভেচ্ছা জানাতেই খুশি মাখা গলা ভেসে আসে কৌশিক এবং চূর্ণী গাঙ্গুলির। চূর্ণী জানান, 'তারিখ ছবি বানাতে গিয়ে বারবার বাধা পেয়েছি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বারেবারে ঘষামাজা করতে হয়েছে চিত্রনাট্য নিয়ে। অভিনেতাদের তাই আন্তরিক অনুরোধ জানিয়েছিলাম, তাঁরা যেন সংলাপ যেভাবে লেখা হয়েছে ঠিক সেভাবেই ক্যামেরার সামনে তুলে ধরেন। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, রাইমা সেন, ঋত্বিক চক্রবর্তী সহ প্রত্যেকেই তাঁদের সেরাটা দিয়েছেন। তার জন্যই তারিখ পেল এই পুরস্কার।' প্রসঙ্গত, চূর্ণী তাঁর প্রথম ছবি নির্বাসিত-র জন্যও জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন। দুই ছবিরই প্রযোজক সুপর্ণকান্তি করাতি।

k7qlvsro


আনন্দের আভাষ পাওয়া গেল কৌশিকের গলাতেও। স্ত্রী চূর্ণী তাঁর দ্বিতীয় ছবি 'তারিখ'-এর জন্য সেরা চিত্রনাট্যের পুরস্কার পাওয়ায় গর্বিত কৌশিক বললেন, '৪০০-৫০০ ছবির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জাতীয় পুরস্কার পেতে গেলে যথেষ্ট মুন্সিয়ানার দরকার। চূর্ণী সেটা পেরেছেন। স্বামী হিসেবে তো বটেই একজন পরিচালক হিসেবেও আমি তৃপ্ত। কারণ, এই পুরস্কার টাকা দিয়ে কেনা যায় না। একই সঙ্গে ক্ষোভ ঝরেছে কৌশিকের কণ্ঠে। তাঁর কথায়, 'তারিখ' তো চলতেই পারল না করণ জোহরের মাল্টি স্টারার ছবি 'কলঙ্ক'-কে হল দিতে গিয়ে। এবার যেন সঠিক বিচার হল। ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্তের 'কেদারা' নিয়ে বলতে গিয়ে অভিনেতা-পরিচালকের মন্তব্য, আমি খুব খুশি ইন্দ্রদীপ এই পুরস্কার পাওয়ায়। এর আগে অনেক ভালো কম্পোজিশন করেছেন। কিন্তু কোনোদিন পুরস্কার পাননি। প্রথম ছবিতেই সেই অভাব পূরণ করলেন।'

প্রসেনজিতের জায়গায় এলেন রাজ চক্রবর্তী, মুখ্য পরামর্শদাতা মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস

এছাড়াও, 'ফেলুদা' তথ্যচিত্রের জন্য সেরা নবাগত পরিচালকের পুরস্কার পেলেন সাগ্নিক চট্টোপাধ্যায়। 'উরি' সিনেমার জন্য সেরা সাউন্ড ডিজাইনারের সম্মান পেলেন বিশ্বদীপ চট্টোপাধ্যায়।




বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement