হোমটিভি

পারিশ্রমিক বাকি শিল্পী ও কলাকুশলীদের একাংশের, গোলমাল টেলিপাড়ায়

পরিস্থিতি এতটাই জটিল হয়ে যায় যে রানা সরকারের প্রযোজনা করা চারটি ধারাবাহিক ‘আমি সিরাজের বেগম’, ‘জয় বাবা লোকনাথ’, ‘মহাপ্রভু শ্রী চৈতন্য’ এবং ‘খনার বচন’ অন্যান্য প্রযোজনা সংস্থাকে দিয়ে দিতে বাধ্য হয় চ্যানেলগুলি।

  | March 28, 2019 16:32 IST (কলকাতা)
Crisis In Bengali Serial Industry

Highlights

  • বহু কলাকুশলীরা প্রাপ্য পারিশ্রমিক এখনও পাননি
  • অনেক টেকনিশিয়ানদেরও এখনও প্রাপ্য টাকা বাকি রয়েছে
  • রানা সরকারের চারটি সিরিয়াল অন্য প্রযোজনা সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে

বেশ ভালই গোলমাল বেঁধেছে বাংলা ধারাবাহিকের জগতে। ইতিমধ্যে এক প্রযোজকের হাত থেকে বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক চলেও গিয়েছে অন্যদের হাতে। তারপরেও গোলমাল যে পুরোপুরি মিটেছে তেমনটা নয়। টেলিপাড়ায় দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ উঠছে, বেশ কয়েকজন প্রযোজক ধারাবাহিকের কলাকুশলী এবং টেকনিশিয়ানদের সময় মতো প্রাপ্য পারিশ্রমিক দিচ্ছেন না। প্রযোজক রানা সরকার, প্রযোজক অরিন্দম শীল এর নামে সময় মতো পারিশ্রমিক না দেওয়ার অভিযোগ বার বার জমা পড়ছিল আর্টিস্টস ফোরামে। অভিযোগ ধারাবাহিকের আরও একজন বড় প্রযোজক সুব্রত রায়ও নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে শিল্পীদের পারিশ্রমিক দিচ্ছেন না বেশ কয়েক মাস ধরেই।

পদে পদে বিপদ, তবু কালীকুণ্ডে পৌঁছতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ উমা

ul0f7i1o

খনার বচন ধারাবাহিকের একটি দৃশ্য

পরিস্থিতি এতটাই জটিল হয়ে যায় যে রানা সরকারের প্রযোজনা করা চারটি ধারাবাহিক ‘আমি সিরাজের বেগম', ‘জয় বাবা লোকনাথ', ‘মহাপ্রভু শ্রী চৈতন্য' এবং ‘খনার বচন' অন্যান্য প্রযোজনা সংস্থাকে দিয়ে দিতে বাধ্য হয় চ্যানেলগুলি।


প্রফুল্ল আর ঈশানীর জীবনে নয়া সঙ্কট

একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, অরিন্দম শীল এবং রানা সরকার দুজনেই প্রায় এক কোটি টাকার বেশি পারিশ্রমিক এখনও দিতে পারেননি। ফলে শিল্পী ও কলাকুশলীরাও তাদের সঙ্গে অসহযোগিতা করার সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। তাদের সমর্থন করছে আর্টিস্ট ফোরামও।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement