হোমটলিউড

'২০২০-তে আমি-ই Exclusive': জিৎ

  | December 31, 2019 15:15 IST (কলকাতা)
Jeet

Exclusive 'কিগান মাণ্ডি' জিৎ

২০১৯-এ সেই মেয়ে অনেক পরিণত। সংসারের দিক থেকে। রাজনীতির আঙিনায়। জনগণের মুখ উনি এখন। ফলে, লাইফস্টাইলে অনেক বদল আনতে হয়েছে নুসরতকে।

বছরের একেবারে শেষমুহূর্তে একইসঙ্গে আন্তরিক কিন্তু আত্মবিশ্বাসী ‘কিগান মাণ্ডি' Jeet। অভিনেত্রী নুসরত জাহান থেকে সাংসদ নুসরত জাহান হয়ে ‘ Asur' ছবির মেকআপ নিয়ে মেট্রো ভ্রমণ--- কিচ্ছু বাদ দিলেন না সাক্ষাৎকারে। মুখোমুখি উপালি মুখোপাধ্যায়

প্রশ্ন: মা দুর্গার অসুরকে সবাই জানে। পর্দার অসুর কেমন?

উত্তর: আগেই বলে দেব! ছবি দেখবেন না? (হাসি) এটা পর্দায় জানুন প্লিজ। অসুর কে, অসুর কী, কেন শরতে নয় শীতে---সব জানতে পারবেন। আর তো মাত্র ক'টা দিন। ৩ জানুয়ারি সামনে আসছে পরিচালক পাভেলের তৈরি অসুর। একটু অপেক্ষা করুন। তবে পাভেল কিন্তু অসুরকে শুধুই মা দুর্গার অসুর বলতে নারাজ। ওঁর ব্যাখ্যায়, অসুর মানে অমিত শক্তিধর। সেটা আপনারা পর্দায় দেখে ঠিক করবেন।

প্রশ্ন: ২০২০- থেকে ৩০, ১০ বছরের মধ্যে এই ছবি সবার প্রথম মুক্তি পাচ্ছে...


উত্তর: ভীষণ উত্তেজিত আমরা। প্রচুর পরিশ্রম করে ছবিটা বানিয়েছি সবাই। তাছাড়া, বিষয়টিও অভিনব। কারণ, ২০১৫-য় দেশপ্রিয় পার্কের সবচেয়ে উঁচু দুর্গা ভেঙে পড়ে বিশাল সমস্যা তৈরি করেছিল। কিন্তু আসল কারণ কেউ জানে না। ফলে ট্রেলার রিলিজের পর সেদিকেও মানুষ কৌতূহলী। সঙ্গে বন্ধুত্ব, প্রেম, ফিকশন---সব উপস্থিত। নতুন বছরে নতুনত্বের এই স্বাদ আশা করি ভালো লাগবে। 




প্রশ্ন: কেন এই চিত্রনাট্য পছন্দ হল?

উত্তর: নতুন আঙ্গিকের গল্প আর ২০১৫-র সবচেয়ে উঁচু দুর্গা----এই দু'টি বিষয়কে চমৎকার বেঁধেছেন পাভেল। এটাই এই ছবির চিত্রনাট্যের আসল আকর্ষণ।

প্রশ্ন: নুসরত, আবীর ছাড়াও বহু বছর পরে আবার প্রবীণ অভিনেতা বিপ্লব চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাজ করলেন? কেমন লাগল? এই ছবি তো রীতিমতো রি-ইউনিয়ন!

উত্তর: (হাসি) বিপ্লবদার সঙ্গে আমি আগে বহু ছবি করেছি। ভীষণ আন্তরিক। অভিনয় গুলে খেয়েছেন। মজার মানুষ। কাজ করতে খুব ভালো লাগে। তবে ইদানিং অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা, নতুন বছরে উনি আবার অআগের মতো সুস্থ হয়ে উঠুন। যেভাবে চিত্রনাট্য ছাড়াই গল্পটা শুনিয়েছিলেন পাভেল না করতে পারিনি।

প্রশ্ন: সাংসদ নুসরতের সঙ্গে কাজ করে কেমন লাগল? নায়িকা বদলেছেন?

উত্তর: (আবার হাসি) সাংসদ হওয়ার পরে প্রথম, বিয়ের পরেও আমার সঙ্গে নুসরতের এটা প্রথম কাজ। অ-নে-ক বদলে গেছেন নুসরত! ২০১১-য় যখন নুসরতের সঙ্গে আমার প্রথম দেখা হয় তখনও অভিনেত্রীর তকমাও পাননি নুসরত। একদম ফ্রেশ মুখ। কাজ করার ইচ্ছে নিয়ে এসেছিল দেখা করতে। ২০১৯-এ সেই মেয়ে অনেক পরিণত। সংসারের দিক থেকে। রাজনীতির আঙিনায়। জনগণের মুখ উনি এখন। ফলে, লাইফস্টাইলে অনেক বদল আনতে হয়েছে নুসরতকে।

প্রশ্ন: ছবিতে একদম ডি-গ্ল্যাম লুক। উপভোগ করলেন? 

উত্তর: বলতে পারেন, একঘেয়েমি কাটল আমার। দর্শকেরা বরাবর গ্ল্যামারাস লুক দেখেছে জিতের। এবার নতুন রূপে দেখবেন। আশা করি, আমার মতোই ভালো লাগবে। তাছাড়া, আমরা অভিনেতারা মুখিয়ে থাকি নতুনত্ব কিছু করতে। পাভেলের কিগান মাণ্ডি সেই সুযোগ দিল আমায়। আমি ভাগ্যবান।




প্রশ্ন: এই  ডি-গ্ল্যাম লুক নিয়েই মেট্রো সফর। বিশেষ কোনও চিন্তা থেকে? 

উত্তর: (হাসতে হাসতে) যাঁরা জানতেন জিতের ছবিতে শ্যুট করতে আসছেন তাঁরাও সেটে দেখে আমায় চিনতে পারেননি। উল্টে বলতেন, কোথায় জিৎ? এদিকে আমি পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি! এই ব্যাপারটা থেকেই মেট্রো সফরের ভাবনা।

প্রশ্ন: কেউ চিনতে পেরেছেন? 

উত্তর: নাহ! তবে কয়ের জনের কপালে ভাঁজ পড়ব পড়ব করছিল। ভ্রু উঁচু হচ্ছিল বিষ্ময়ে। আমি আর বেশি কারোর দিকে তাকাইনি। কারণ, চোখে চোখ পড়লেই হয়ত সবাই চিনে ফেলতেন। আর কথাও বলিনি। কারণ, গলার স্বর শুনেও ধরে ফেলতেন। পুরো ব্যাপারটা জাস্ট উপভোগ করেছি।

প্রশ্ন: এই প্রথম নিজের গণ্ডির বাইরে এসে নতুন ধারার ছবিতে অভিনয় করলেন? জিৎ তৃপ্ত?

উত্তর: সাংবাদিকরা কোনও খবরে নতুনত্ব আনতে কত কিছু করেন। এক্সক্লুসিভ তকমা দেন। মনে করুন জিৎ-ও সেটাই করল। নতুন বছরে, নতুন গল্পে, নতুন লুকে, নতুন আঙ্গিকে। ২০২০-র Exclusive আমিই (হাসি)।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com