হোমবলিউড

‘‘আমার থেকে সুযোগ নিয়ে আমারই নাম খারাপ করছেন কঙ্গনা’’, ক্ষোভ পহেলাজ নিহালনির

পহেলাজ আরও বলেন, ‘‘কঙ্গনা হয়তো ভুলে গিয়েছে যে, সেই সময় আমার সিনেমা ‘আই লাভ ইউ বস'-এর কাজটি পাওয়ার জন্য ও কতটা আগ্রহী ছিল। যে চরিত্রটিকে আজকে ওর পর্ন বলে মনে হচ্ছে, সে দিন আমাকে বারবার অনুরোধ করেছিল সেই চরিত্রে ওকে নেওয়ার জন্য।''

Kangna Ranaut

পহেলাজের প্রশ্ন, ‘‘এটাই কী আমার প্রাপ্য?’’

Highlights

  • কঙ্গনার মতো অভিনেত্রীরা খারাপ উদাহরণস্বরূপ, বলেন পহেলাজ
  • ‘আমাকে অনেকে বারণ করা সত্ত্বেও ওকে কাজ দিয়েছিলাম,’ মন্তব্য তাঁর
  • ‘কঙ্গনাই চরিত্রটি পাওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিল,’ বলেন পহেলাজ

প্রযোজক পহেলাজ নিহালানি জানিয়েছেন, অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত ভুলে গিয়েছেন যে, তিনি যখন বিপদে পড়েছিলেন তাকে পহেলাজ কতখানি সাহায্য করেছিলেন। দিন কয়েক আগেই নতুন করে মন্তব্য বোমা ফাটিয়েছেন কঙ্গনা রানাউত। একটি টক শো-তে এসে তিনি বলেছিলেন, ‘‘আই লাভ ইউ বস সিনেমার জন্য তাকে একটি চরিত্র অফার করেছিলেন পহেলাজ। সেই চরিত্রটি ছিল কিছুটা পর্ন ঘেঁষা। সেই চরিত্রের প্রয়োজনে একটি ফটোশুটে পহেলাজ তাকে কোনওরকম অন্তর্বাস ছাড়াই শুধুমাত্র একটি আলখাল্লার মতো পোশাক পরতে বাধ্য করেছিলেন।

ভালোবাসা কলঙ্ক নয়, কাজলের মতো...অরিজিতের গলায় শুনুন কলঙ্কের টাইটেল ট্র্যাক

তবে পহেলাজ অবশ্য একেবারে অন্য কথা শোনালেন। তিনি বলেন, ‘‘প্রথমত ফটোশুটে আমি নিজেই উপস্থিত ছিলাম না। আমার তৎকালীন সেক্রেটারি রাকেশ নাথের সঙ্গে কঙ্গনা গিয়েছিল (Kangana Ranaut and Pahlaj Nihalani Controversy)। আমি তখন মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গেও সিনেমার জন্য কথা বলেছিলাম। তাই তখন কঙ্গনা কী পরেছিল বা পরেনি সেটা নিয়ে মাথা ঘামানোর মতো সময় আমার ছিল না।''

পহেলাজ আরও বলেন, ‘‘কঙ্গনা হয়তো ভুলে গিয়েছে যে, সেই সময় আমার সিনেমা ‘আই লাভ ইউ বস'-এর কাজটি পাওয়ার জন্য ও কতটা আগ্রহী ছিল। যে চরিত্রটিকে আজকে ওর পর্ন বলে মনে হচ্ছে, সে দিন আমাকে বারবার অনুরোধ করেছিল সেই চরিত্রে ওকে নেওয়ার জন্য। আদিত্য পাঞ্চোলির সঙ্গে তখন প্রত্যেক প্রযোজকের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়াতো কঙ্গনা। কিন্তু কিছুই হচ্ছিল না। ওকে কেউ নিত না। আমিই প্রথম ওকে সিনেমায় নিই। যদিও অনেকে আমাকে বারণ করেছিল।''


‘শিশুরা মাতৃক্রোড়ে....' ছোট্ট আশ্চর্যকে কোলে আঁকড়ে রয়েছেন মীরা রাজপুত

পহেলাজ বিস্ময় প্রকাশ করেন, ‘‘হঠাৎ সেই সিনেমার কথা এতদিন পরে কঙ্গনার কী ভাবে মাথায় এলো। কারণ গত ১০ বছর ধরে কঙ্গনা অনুরাগ বসুকে ওর মেন্টর হিসেবে সব জায়গায় বলে আসছে। ও তো ভুলেই গিয়েছিল যে তারও আগে আমি ওকে প্রথম কাজ দিয়েছিলাম এবং তখন সেই কাজ নিয়ে ও খুশিই ছিল। গল্পটি ছিল একজন তরুণী সেক্রেটারির তার বসের প্রতি একটা ক্রাশ তৈরি হওয়াকে ঘিরে। বসের চরিত্রের জন্য প্রথমে অমিতাভ বচ্চনকে অফার করেছিলাম। তিনি না বলায় ঋষি কাপুরকে অফার করা হয়। ঋষি চরিত্রটি নিয়ে খুবই আগ্রহী ছিলেন, কিন্তু সময় বার করতে পারেননি, ফলে চরিত্রটি শত্রুঘ্ন সিনহার কাছে যায়।''

‘‘তখন কঙ্গনা এসে বলে জারিনা ওয়াহাব ওকে শত্রুঘ্ন সিনহার সঙ্গে কাজ না করার পরামর্শ দিয়েছেন। আমি খুবই অবাক হই, কিন্তু সেখানেই বিষয়টি ইতি হয়ে যায়। কঙ্গনার সঙ্গে আমার তিনটি ছবি করার চুক্তি হয়েছিল কিন্তু ও এসে আমায় বলে যে অনুরাগের এই ছবিটা ও করতে চায়। আমি ওকে চুক্তি থেকে মুক্তি দিই। তার পরেও একবার রিতেশ সিদ্ধওয়ানির সিনেমার জন্য কঙ্গনার মুম্বইয়ের বাইরে যাওয়ার দরকার ছিল। কিন্তু ওর পাসপোর্টে ঠিকানা সংক্রান্ত ভুল তথ্য থাকায় বিষয়টি আটকে যায়। এটা একটা সিরিয়াস ক্রাইম। আমি দৌড়াদৌড়ি করে বিষয়টি ঠিক করি। আর আজ ও আমার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আনছে?'' ক্ষোভ জানান পহেলাজ।

পহেলাজ বলেন, ‘‘কঙ্গনা রানাউতের মতো অভিনেত্রীরা আসলে প্রযোজকের দেওয়া সুযোগ নেন এবং পরে তাদেরই নাম খারাপ করেন। জীবনের সাফল্যের সঙ্গে সঙ্গে তারা ভুলে যান নিজেদের স্ট্রাগলকে এবং ভুলে যান আজকের উচ্চতায় পৌঁছানোর আগে কারা তাদের সাহায্য করেছেন।''


(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement