হোমবলিউড

Manikarnika Movie Review: অন্তঃসারশূন্য স্টান্ট কুইন হয়েই রয়ে গেলেন কঙ্গনার রানি লক্ষ্মীবাঈ

মণিকর্নিকা আসলে কঙ্গনার সিনেমা। একটা ঐতিহাসিক ঘটনাকে একার কাঁধে চাপিয়ে টেনে তোলার চেষ্টা।

  | January 25, 2019 11:09 IST
Manikarnika Review

সিনেমার একটি দৃশ্যে কঙ্গনা রানাউত

Highlights

  • ভিস্যুয়াল এফেক্টগুলো খুব খারাপ, সংলাপে আলস্য প্রকট
  • ইতিহাসের এক বীরাঙ্গনাকে শুধুমাত্র মহিলা স্টান্টম্যানে পর্যবসিত করেছে
  • যুদ্ধের দৃশ্যগুলো বড়ই ক্লান্তিকর

অভিনয়ে: কঙ্গনা রানাউত, অঙ্কিতা লোখান্ডে, যীশু সেনগুপ্ত, জীশান আইয়ুব, ড্যানি ডেনজংপা, অতুল কুলকার্নি

পরিচালক: কঙ্গনা রানাউত ও কৃষ

রেটিং: ১ টি স্টার (পাঁচের মধ্যে)

 


মাতৃভূমির প্রতি নিঃস্বার্থ প্রেম দেখিয়ে ১৬০ বছর আগে যুদ্ধক্ষেত্রে প্রাণ ত্যাগ করেছিলেন রানি লক্ষ্মীবাঈ। আর সেই উদ্যম স্ক্রিনে ফুটিয়ে তুলতে গিয়ে উল্টে দর্শককে হতাশ করে বাড়ি পাঠিয়ে দিল ‘মনিকর্নিকা: দ্য কুইন অফ ঝাঁসি'। ভিস্যুয়াল এফেক্টগুলো খুব খারাপ, সংলাপে আলস্য প্রকট।

দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে চলেছেন রজনীকান্তের কন্যা। কে তাঁর হবু বর?

মণিকর্নিকার পরিচালনার জন্য কৃষ্ণ জগলমুড়ির থেকেও বেশি ক্রেডিট নিয়েছেন কঙ্গনা। কিন্তু আদতে সিনেমাটি ভারতীয় ইতিহাসের এক বীরাঙ্গনাকে শুধুমাত্র মহিলা স্টান্টম্যানে পর্যবসিত করে ফেলেছে।

হঠাৎ একটি দৃশ্যে দেখা গেল রানি লক্ষ্মীবাঈ ভাঙা ভাঙা ইংরাজিও বলছেন। গোটা সিনেমা জুড়েই মাতৃভূমির জয়জয়কার চললেও তা এতটাই অপ্রাসঙ্গিক ভাবে করা হয়েছে যে তা বুঝতে দীর্ঘক্ষণ আপনাকে মাথার চুল ছিঁড়তে হতে পারে।

uai03gs

সিনেমার একটি দৃশ্য

আবার একটি দৃশ্যে দেখা যায় রানি চ্যাম্পিয়ন অ্যাথলিটের মতো দৌড়াচ্ছেন, ঝাঁপাচ্ছেন, লাফিয়ে পড়ছেন। দেশভক্তিকে সিনেমার প্রতিটি দৃশ্যে এত বেশি রকমের গুলে খাওয়ানোর চেষ্টা হয়েছে যে বেশিরভাগ সময়েই পুরোটা অবিশ্বাস্য লাগে। আরেকটি দৃশ্যে রানির স্বামী মহারাজা গঙ্গাধর রাও নেওয়ালকরের ভূমিকায় যীশু সেনগুপ্তের হাতের কড়া (যা বশ্যতার চিহ্ন) নেড়েচেড়ে দেখছেন রানি। একটি নারী ক্ষমতায়ন বিষয়ক সিনেমায় নারীর আভূষণ কেন তার বশ্যতার প্রতীক হবে তা বোধগম্য হল না।

লাইভ শোতে কেমন ‘আঁখ মারে' গান করেন নেহা? দেখুন ভাইরাল ভিডিও

26afsoj

সিনেমার একটি দৃশ্য

ভাগ্যিস শুরুতেই সিনেমাটি বলে দিয়েছিল তারা কোনও ঐতিহাসিক ঘটনার পুনর্নিমাণ করছে না। শুধুমাত্র সিনেমার শুরুতে অমিতাভ বচ্চনের গলায় ব্রিটিশদের হিংসা ও অত্যাচারে পবিত্র ভূমির দুরবস্থার অংশটুকু শুনতে ভালো লাগে।

রানী লক্ষ্মীবাঈয়ের একমাত্র সন্তানের জন্ম ও মৃত্যু, স্বামীর মৃত্যুর দৃশ্যগুলি বেশ দীর্ঘ। প্রথম দেখা যায় ১৪ বছরের লক্ষ্মীবাঈকে, যিনি একটি ছাগলকে বাঘের খাদ্য হওয়ার হাত থেকে বাঁচান, তারপরেই একটি গরুকে এক ব্রিটিশের মধ্যাহ্নভোজ হওয়ার হাত থেকেও রক্ষা করেন। গরু বাঁচাও বার্তা ছাড়া কী সিনেমা এখন একেবারেই সম্ভব নয়!

dpvjfu5g

সিনেমার একটি দৃশ্য

বিভিন্ন দৃশ্যে প্রযোজন মতো কঙ্গনা হেসেছেন, কেঁদেছেন, চেঁচিয়েছেন, ভেঙে পড়েছেন ফের উঠেও দাঁড়িয়েছেন, কিন্তু সিনেমাটিকে টেনে তুলতে পারেননি। বিশেষ করে যুদ্ধের দৃশ্যগুলো বড়ই ক্লান্তিকর।

3dgetd38

সিনেমার একটি দৃশ্য

মহম্মদ গৌস খানের চরিত্র ড্যানি ডেনজংপা, তাঁতিয়া টোপের চরিত্রে অতুল কুলকার্নি এবং বিশ্বাসঘাতকের চরিত্র জীশান আইয়ুব নজরে পড়লেও তাদের বিশেষ সুযোগ ছিল না।

clfj72f

সিনেমার একটি দৃশ্য

সিনেমাতে ব্রিটিশ মাত্রেই খারাপ। সুতরাং তাদের চরিত্রগুলির সুযোগ আরও কম ছিল। মণিকর্নিকা আসলে কঙ্গনার সিনেমা। একটা ঐতিহাসিক ঘটনাকে একার কাঁধে চাপিয়ে টেনে তোলার চেষ্টা। তিনি চেষ্টার কসুর করেননি ঠিকই, তবে ফল আশাব্যাঞ্জক নয়।


আসলে মণিকর্নিকা অনেক চেষ্টা করেও একটি অন্তঃসারশূন্য সিনেমা হয়েই রয়ে গেল।

আরও খবর দেখুন এখানে


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement