হোমবলিউড

"ভাবুন; আজ হলে কী হত!" প্রাক্তন বান্ধবীর সঙ্গে নগ্ন বিজ্ঞাপনী ছবি শেয়ার করে প্রশ্ন মিলিন্দ সোমানের

"এটা ২৫ বছর পুরনো ছবি! সেই সময় কোনও সোশ্যাল মিডিয়া ছিল না, এমনকি ইন্টারনেটও ছিল না বলেই আমার মনে হয়! ভাবুন, আজকে এই ছবি প্রকাশ পেলে কী প্রতিক্রিয়া হত,” মিলিন্দ সোমান এই পুরনো ছবিটি শেয়ার করে লিখেছেন।

  | May 18, 2020 10:14 IST (নয়াদিল্লি)
Milind Soman

সাদা কালো নগ্ন ছবিতে অজগরের প্যাঁচে মিলিন্দ সোমান-মধু সাপ্রে

Highlights

  • টাফ জুতোর বিজ্ঞাপনে মিলিন্দ সোমান-মধু সাপ্রে
  • অজগর গায়ে জড়িয়ে বিজ্ঞাপনী শ্যুট করেন তাঁরা
  • "সেই সময় কোনও সোশ্যাল মিডিয়া ছিল না" লিখেছেন মিলিন্দ

১৯৮৮ সালে মডেল হিসেবে জীবিকা শুরু করেছিলেন মিলিন্দ সোমান। ৫৪ বছর বয়সী অভিনেতা-মডেল ইনস্টাগ্রামে ১৯৯৫ সালে তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী মধু সাপ্রের সঙ্গে বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের একটি কালো-সাদা স্মৃতি রোমন্থন করেছেন এবং এই সময়ে এই ছবির শ্যুট হলে ইন্টারনেট কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানাত সে সম্পর্কেও কৌতূহল প্রকাশ করেছেন। মিলিন্দ সোমান এবং মধু সাপ্রে টাফ জুতোর বিজ্ঞাপনের জন্য নগ্ন হয়ে শ্যুট করেছিলেন। তাঁদের সারা শরীরে অজগর সাপ জড়িয়ে ছিল এবং পরণে ছিল একমাত্র টাফ জুতো। বিজ্ঞাপনটি প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে বিজ্ঞাপনটির স্রষ্টাদের এবং যে দু'টি ম্যাগাজিনের প্রকাশিত হয় এই বিজ্ঞাপন সেই প্রকাশকদের বিরুদ্ধে দু'টি মামলা দায়ের করা হয়।

“আমার টাইমলাইনে হামেশাই এই ছবিটা উঁকি দিতে থাকে। এটা ২৫ বছর পুরনো ছবি! সেই সময় কোনও সোশ্যাল মিডিয়া ছিল না, এমনকি ইন্টারনেটও ছিল না বলেই আমার মনে হয়! ভাবুন, আজকে এই ছবি প্রকাশ পেলে কী প্রতিক্রিয়া হত,” মিলিন্দ সোমান এই পুরনো ছবিটি শেয়ার করে লিখেছেন।


Keep seeing this pop up on my timelines every once in a while :) its 25 years old, at that time no social media no internet either I think ! wonder what the reaction would have been if it had been released today . . . #flashback #timelapse #blackandwhite #nude #photo


A post shared by Milind Usha Soman (@milindrunning) on


মিলিন্দ সোমানের কৌতূহলের জবাবে, তাঁর পোস্টটি প্রায় ১৪০০-রও বেশি মন্তব্য জমা পড়েছে। “এই ছবিটি সম্ভবত প্রথমবার আমি ভারতীয় ফ্যাশন এবং ফ্যাশন মডেলদের সম্পর্কে শুনেছিলাম,” মন্তব্য করেছেন একজন। অন্যজন লিখেছেন, “এই ছবিটার কারণেই আমি প্রথম জানতে পারি আপনার মতো কেউ রয়েছেন।” “আমি সেই সময় ছোট ছিলাম এবং এই ছবিটির জন্যই আপনার নাম প্রথমবার শুনেছিলাম! সাহসী,” লিখেছেন অন্য একজন।

মিলিন্দ সোমান এর আগে নিজের ইনস্টাগ্রামে ১৯৯১ সালের এই ছবিটি শেয়ার করেছিলেন: “থ্রোব্যাক থার্সডে। দ্য রিজ, দিল্লি, ১৯৯১!”



১৯৯৫ সালে মিলিন্দ সোমানকে আলিশা চিনয়ের ‘মেড ইন ইন্ডিয়া' মিউজিক ভিডিওতে দেখা যায়। মিলিন্দ সোমান তাঁর প্রথম টিভি শো ‘আ মাউথফুল অফ স্কাই'তেও অভিনয় করেছিলেন। ২০০০ সালে ‘তারকিব' সিনেমা দিয়ে তিনি বলিউডে পা রাখেন। অঙ্কিতা কানোয়ারের সঙ্গে বর্তমানে গাঁটছড়া বেঁধেছেন মিলিন্দ। তাঁকে শেষ দেখা গিয়েছে অ্যামাজন প্রাইম ওয়েব সিরিজ ৪ মোর শটস প্লিজ-এর দ্বিতীয় সিজনে।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com