হোমবলিউড

'Panipat' First Look: ফের ঐতিহাসিক সিনেমা আশুতোষের, পানিপথের ময়দানে সঞ্জয়-অর্জুন-কৃতী

  | November 04, 2019 16:46 IST (নয়াদিল্লি)
Panipat

Panipat: পানিপথে অর্জুন কাপুর

ভারী শিরস্ত্রাণে ঢাকা মাথা, বর্মে ঢাকা শরীরে সেজেছেন অর্জুন কাপুর। নিজের ফার্স্ট লুক শেয়ার করে অর্জুন কাপুর লিখেছেন, “সাহসিকতা হ'ল আপনি যা বিশ্বাস করেন তার পক্ষে দাঁড়ানো, আপনি যদি সে পক্ষে একা হন, তাও!”

ফের ইতিহাসের ঘটনা সেলুলয়েডে। আশুতোষ গোয়ারিকরের (Ashutosh Gowariker) আগামী সিনেমা পানিপথের (Panipatট্রেলার প্রকাশিত হবে আগামীকাল, মঙ্গলবার। তবে চলচ্চিত্রের নির্মাতারা ইতিমধ্যেই প্রকাশ করেছেন অভিনেতাদের ফার্স্ট লুক, তাতে অবশ্য সামান্য হলেও মিটেছে ভক্তদের কৌতূহল! পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধে (Third Battle of Panipat) মারাঠা সেনাবাহিনীর সর্বাধিনায়ক সদাশিব রাও ভাউয়ের (Sadashiv Rao Bhau) ভূমিকায় রয়েছেন অর্জুন কাপুর। ভারী শিরস্ত্রাণে ঢাকা মাথা, বর্মে ঢাকা শরীরে সেজেছেন অর্জুন কাপুর। নিজের ফার্স্ট লুক শেয়ার করে অর্জুন কাপুর লিখেছেন, “সাহসিকতা হ'ল আপনি যা বিশ্বাস করেন তার পক্ষে দাঁড়ানো, আপনি যদি সে পক্ষে একা হন, তাও!” 

আরও পড়ুনঃ Viral: শাহরুখ খানের জন্মদিনে সেজে উঠল বিশ্বের উচ্চতম বুর্জ খলিফা! দেখুন ভিডিও

অর্জুন কাপুরের (Arjun Kapoor's look) ফার্স্ট লুক দেখুন:



সদাশিব রাও ভাউয়ের দ্বিতীয় স্ত্রী পার্বতী বাইয়ের (Parvati Bai) চরিত্রে অভিনয় করছেন কৃতী শ্যানন (Kriti Sanon)। সিনেমার পোস্টারে শাড়ি আর ভারী গয়না পরে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রীকে। নিজের ফার্স্টলুক শেয়ার করে কৃতী লিখেছেন, “পার্বতী বাই- একজন সত্যিকারের রানীর কোনও মুকুটের দরকার পড়ে না।”

কৃতী শ্যাননের সিনেমার লুক দেখুন:



আরও পড়ুনঃ Nach Baliye 9: অ্যান্ড দ্য উইনার্স... প্রিভিকা?

তবে এই সিনেমায় সঞ্জয় দত্তের (Sanjay Dutt) লুক একেবারে অনন্য! ৬০ বছর বয়সী সঞ্জয় দত্ত এই চলচ্চিত্রে আফগানিস্তানের রাজা আহমেদ শাহ আবদালির (Ahmad Shah Abdali) চরিত্রে অভিনয় করছেন। পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধে মারাঠাদের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন আহমেদ শাহ আবদালি। মাথায় ভারী শিরস্ত্রাণ পরে, লম্বা দাড়ি এবং কাজল পরা চোখে সঞ্জয় দত্ত একেবারে অনন্য অসাধারণ। সঞ্জয় দত্ত তাঁর পোস্টের ক্যাপশনে লিখেছেন: “যেখানে তার ছায়া পড়ে সেখানেই মৃত্যু অতর্কিতে।”

দেখুন সিনেমায় সঞ্জয় দত্তের নয়া লুক:



সিনেমাটির মূল উপজীব্য পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধের পটভূমি। এই যুদ্ধে আফগানিস্তানের সৈন্যবাহিনীর সঙ্গে লড়াই হয়েছিল মারাঠা সেনাদের। ইতিহাস বলে, ১৭৬১ সালের ১৪ জানুয়ারি পানিপথে (বর্তমানে যা হরিয়ানা) যুদ্ধ হয়েছিল এবং এটি আঠারো শতকের অন্যতম স্মরণীয় যুদ্ধ! এই চলচ্চিত্রটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন সুনিতা গোয়ারিকারের প্রোদাকশন হাউজ এজিপিপিএল এবং ভিশন ওয়ার্ল্ড। ডিসেম্বর মাসে মুক্তি পাবে চলচ্চিত্রটি।

এই বছরের গোড়ার দিকেই একটি সাক্ষাত্কারে এই চলচ্চিত্রের প্রধান অভিনেতা অর্জুন কাপুর জানিয়েছিলেন যে, ঐতিহাসিক কোনও সিনেমায় অভিনয় করতে চেয়েছিলেন। অর্জুন বলেন, “আমি পানিপথকে বেছে নিইনি, পানিপথই আমাকে বেছে নিয়েছে। আমি খুঁজতে যাইনি। আমার সবসময়ই ইচ্ছা ছিল, এবং কখনও কখনও মন থেকে যা চাওয়া হয় তা হয়েও যায়। এবং এটি এমন সময় ঘটেছে যখন আমি মনে করি আমি এর জন্য প্রস্তুত... যদি আমাকে পিরিয়ড ড্রামা বা ঐতিহাসিক যুদ্ধেরপি সিনেমায় কাজ করতেই হয় তবে আশুতোষ গোয়ারিকার ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। তাঁর ধৈর্য, ​​আবেগ এবং গল্প বলার দক্ষতা দিয়েই তিনি কাজটাকে ফুটিয়ে তোলেন।”


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement