হোমফটো

৫২-তেও দুরন্ত খিলাড়ি অক্ষয় কুমার, জন্মদিনে ছবিতে দেখুন অক্ষয়ের জীবন

September 09, 2019 13:10
  1. 01

    অ্যাকশন এবং কমিক তারকা অক্ষয় কুমার আজ ৫২ বছর বয়সে পা দিলেন। বলিউডের অন্যতম সফল নায়ক অক্ষয়ের কেরিয়ার গ্রাফটি বহু বছর ধরেই প্রচুর চড়াই উৎরাই দেখেছে। জীবনের পথে আরও এক বছর এগিয়ে গেলেন তিনি, আসুন ছবিতে দেখে নিই অক্ষয়ের রঙিন জীবন।

  2. 02

    অক্ষয় কুমারের আসল নাম হরি ওম ভাটিয়া। ১৯৬৭ সালের ৯ সেপ্টেম্বর অমৃতসরে এক সেনা কর্মকর্তার স্ত্রীর গর্ভে জন্ম হয় বলিউড অভিনেতার। এরপরেই পরিবারটি দিল্লিতে চলে আসে, চাঁদনী চকে বসবাস করেন তাঁরা। মুম্বাই চলে যাওয়ার আগে সেখানেই ডন বসকো স্কুল এবং খালসা কলেজে পড়াশোনা করেন অক্ষয়।

  3. 03

    মার্শাল আর্টের গুণগ্রাহী, অক্ষয় তাইকোনডোতে ব্ল্যাক বেল্ট অর্জন করেন। এরপর তিনি থাইল্যান্ডে চলে যান। সেখানে তিনি মুয়ে থাই বিষয়ে পড়াশোনা করেছিলেন এবং শেফ হিসাবে কাজ শুরু করেন।

  4. 04

    মুম্বই ফিরে আসার পরে, অক্ষয় মার্শাল আর্ট শিখিয়েই উপার্জন করা শুরু করেন এবং তাঁর প্রথম শিক্ষার্থীদের মধ্যে একজন ছিলেন ফটোগ্রাফার, তাঁর সহযোগিতায় প্রথম মডেলিং করেন অক্ষয়। মডেলিংয়ে বেশ নাম করেন তিনি, আর তারপরই নিজের পোর্টফোলিও নিয়ে ফিল্ম স্টুডিওতে যাতায়াত শুরু অক্ষয় কুমারের। এই ছবিটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন অক্ষয় কুমার

  5. 05

    অক্ষয় দিদার (১৯৯২) সিনেমায় অভিনেত্রী করিশমা কাপুরের বিপরীতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন। সিনেমাটি ১৯৯১ সালে মুক্তি পায়। ১৯৯১ সালে সৌগন্ধ সিনেমায়, রাখি ও শান্তি প্রিয়ার বিপরীতেই বলিউডে অভিষেক ঘটে অক্ষয়ের।

  6. 06

    অক্ষয়ের প্রথম বড় ব্রেক হল তাঁর খিলাড়ি (১৯৯২) সিনেমাটি। সিনেমাটি এতই জনপ্রিয় হয় এবং পরে খিলাড়ি ট্যাগ নিয়ে আরও কয়েকটি সিনেমার সিরিজ হয় যা সারাজীবন ধরে অক্ষয়ের জন্য বলিউডের ‘খিলাড়ি' পরিচয় স্থায়ী করে দেয়।

  7. 07

    পর পর পাঁচটি ছবি বক্স অফিসে খাতাই খুলতে পারে না তেমন। অশান্ত (১৯৯৩), দিল কি বাজি (১৯৯৩), কায়দা কানুন (১৯৯৩), ওয়াক্ত হামারা হ্যায় (১৯৯৩) এবং সৈনিক (১৯৯৩) অক্ষয়ের কেরিয়ার গ্রাফ নিচের দিকে নামিয়ে দেয়। তবে, ইয়ে দিল্লাগি (১৯৯৪) তে তাঁর অভিনয়ের জন্য অক্ষয় জীবনের প্রথম ফিল্মফেয়ার এবং স্টার স্ক্রিনের সেরা অভিনেতার মনোনয়ন পান।

  8. 08

    খিলাড়ি সিরিজের পরেরটি, ম্যায় খিলাড়ি তু আনাড়ি (১৯৯৪) জনমানসে জনপ্রিয়তা লাভ করে। আনাড়ি চরিত্রে সইফ আলি খান এবং খিলাড়ি পুলিশ হিসাবে অক্ষয়কে নিয়ে তৈরি চলচ্চিত্রের পরে এই জুটিও জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। একই বছরে সুহাগ (১৯৯৪) এবং এলান (১৯৯৪) এর মতো সফল ছবি অক্ষয়ের জন্য ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের পথ তৈরি সহজ করে দেয়।

  9. 09

    ২০০১ সালে অভিনেত্রী টুইঙ্কল খান্নাকে বিয়ে করেন অক্ষয় কুমার। তাদের ছেলে আরভ ২০০২ সালে জন্ম নেয় এবং কন্যা নিতারা ২০১২ সালে জন্মগ্রহণ করে।

  10. 10

    ২০০৯ সালে, অভিনেতা অক্ষয় কুমার পদ্মশ্রী পুরস্কার পেয়েছিলেন। সে বছরই তাঁর সহ পুরস্কার প্রাপক ছিলেন আরেক অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাই।

  11. 11

    অক্ষয় কুমার ২০১৭ সালে রুস্তম চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে প্রথম জাতীয় পুরস্কার পান।

  12. 12

    অক্ষয় কুমারকে আগামীতে রোহিত শেট্টির সূর্যবংশীতে দেখা যাবে, যেখানে তিনি ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে অভিনয় করবেন। এছাড়াও আগামীতে লক্ষ্মী বোম, হাউসফুল 4 এবং গুড নিউজের মতো চলচ্চিত্রেও দেখা যাবে অক্ষয়কে।

  13. 13

    অক্ষয়কে জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা এনডিটিভি বাংলার পক্ষ থেকে!

Advertisement