হোমবলিউড

কঙ্গনা রাওয়াতের সঙ্গে রাজকুমার রাওয়ের ঘনিষ্ঠতা কি দিন দিন বাড়ছে?

Rajkumar Rao And Kangana Ranaut: রঙ্গুনে শাহিদ কাপুর ছাড়াও সইফ আলি খানও অভিনয় করেছেন। কফি উইথ করণের বিতর্কিত পর্ব যেখানে কঙ্গনা করণ জোহারকে “নেপোটিজমের পথ প্রদর্শক” বলে অভিহিত করেন সেই পর্বে সইফ আলি খানও উপস্থিত ছিলেন।

  | September 15, 2018 09:25 IST (নিউ দিল্লী)
Rajkummar Rao

মুম্বাইতে কঙ্গনা রানাওয়াত ও রাজকুমার রাও।

Highlights

  • আমাদের সম্পর্ক আগের চেয়ে ভাল হয়েছেঃ রাজকুমার রাও
  • আমরা পরস্পরের সঙ্গে অনেক বেশি কমফোর্টেবল হয়েছিঃ রাজকুমার রাও
  • বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমাদের প্রায়ই দেখা হয়ঃ রাজকুমার রাও

রাজকুমার রাও এবং কঙ্গনা রানাওয়াত প্রথমবার 2014 সালে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ক্যুইন ছবিতে অভিনয় করেছেন। রাজকুমার জানিয়েছেন কঙ্গনার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক দিন দিন ভাল হয়েছে। কঙ্গনা ও রাজকুমারের পরবর্তী ছবি মেন্টাল হ্যায় ক্যা। রাজকুমার সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-কে জানিয়েছেন, “আগের চেয়ে আমার এবং কঙ্গনার সম্পর্ক অনেক বেশি ভাল হয়েছে। কারণ এখন আমরা নিজেদের চিনি যা সেই সময় চিনতাম না। বর্তমানে আমরা পরস্পরকে তিন-চার বছর ধরে চিনি। বিভিন্ন পার্টি, মিটিং-এ আমাদের দেখা হয়েছে। সুতরাং আমাদের মধ্যে আর কোনও অস্বস্তিবোধ কাজ করে না।“  

কঙ্গনার সঙ্গে অন্যান্য অভিনেতা-অভিনেত্রীদের তুলনায় রাজকুমারের র‍্যাপো আজকাল সকলেরই দৃষ্টি আকর্ষণ করছে। ফলত প্রায়ই তাঁদের সংবাদ শিরোনামে দেখা যাচ্ছে। রঙ্গুন ছবির শুটিং চলাকালীন শাহিদ কাপুরের সঙ্গে কঙ্গনার ঠাণ্ডা লড়াই চলছিল। তাঁরা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বিস্ফোরক মন্তব্য করছিলেন। একটা সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা রঙ্গুন-কে “তিন নায়কের ছবি” বলার পরেই সমস্যার সূত্রপাত হয়। প্রত্যুত্তরে ডিএনএ-এর সাক্ষাৎকারে শাহিদ বলেছিলেন, “ওঁ কেন ছবির তিন অভিনেত্রীর কথা উল্লেখ করছে না? অভিনেত্রীরা কি কোনও অংশে কম?”

রঙ্গুনে শাহিদ কাপুর ছাড়াও সইফ আলি খানও অভিনয় করেছেন। কফি উইথ করণের বিতর্কিত পর্ব যেখানে কঙ্গনা করণ জোহারকে “নেপোটিজমের পথ প্রদর্শক” বলে অভিহিত করেন সেই পর্বে সইফ আলি খানও উপস্থিত ছিলেন। এরপর দুই তারকার মধ্যে নেপোটিজমকে কেন্দ্র করে কুরুচিকর লড়াই শুরু হয় যার ফল স্বরূপ তাঁরা পরস্পরকে বাজে ভাবে আক্রমণ করতে শুরু করে। 18 তম IIFA অ্যাওয়ার্ডসে যা চূড়ান্ত আকার ধারণ করে।

তাছাড়া ঋত্বিক রোশনের সঙ্গে কঙ্গনা রানাওয়াতের প্রকাশ্যে ঝামেলার কথা কে না জানে? কঙ্গনা দাবী করেন ঋত্বিকের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ছিল। অন্যদিকে ঋত্বিক তা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে পাল্টা অভিযোগ করেন কঙ্গনা রঙ চড়িয়ে মিথ্যা কথা রটাচ্ছেন। 2016 সাল তাঁদের দু’জনের মধ্যে আইনি নোটিশ আদানপ্রদান করেই কেটে যায়। তাঁরা দু’জন কাইটস ও কৃষ 3 ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছেন।


তাছাড়াও সোনু সুদ কঙ্গনার মণিকর্ণিকায় অভিনয়ের থেকে পিছিয়ে আসেন। সিম্বার সঙ্গে তারিখ এক হয়ে যাওয়ায় তিনি পিছিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কঙ্গনা বলেন, “একজন মহিলা পরিচালকের নেতৃত্বে কাজ না করার জন্য ও অভিনয় না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।“ পিটিআই-এর সাক্ষাৎকারে সোনু জানিয়েছেন “কঙ্গনা আমার খুবই প্রিয় বন্ধু কিন্তু চিরকাল নিজের মহিলা কার্ড, ভিক্টিম কার্ড এবং পুরুষদের দোষারোপ করার স্বভাবটা সত্যিই বিরক্তিকর।“ পরিচালক কৃষের পরবর্তী ছবি নন্দমুরি তারকা রামা রাও-এর বায়োপিকের শুটিং শুরু হয়ে যাওয়ায় মণিকর্ণিকার বাদবাকি অংশের পরিচালনা করছেন কঙ্গনা রানাওয়াত।

এছাড়াও শোনা যাচ্ছে কঙ্গনা তাঁর পরবর্তী ছবি পাঙ্গা-তে একটা নন-ইন্টারফেয়ারেন্সের চুক্তি স্বাক্ষর করিয়েছেন। পরিচালক অশ্বিনি আইয়ার তিওয়ারি এই কথা অস্বীকার করে পিটিআই-কে জানিয়েছেন, “আমার কাছে পাঙ্গা এমনই একটা গল্প যা আমি বলতে চেয়েছিলাম। গল্পটা আমার খুবই প্রিয় এবং আমি মনে করি শুধুমাত্র কঙ্গনাই এই চরিত্রটা প্রাণবন্ত করে তুলতে পারবে। আমি সকলের কাছে বিনীত অনুরোধ করছি জাজমেন্টাল না হয়ে আমাদের পাশে থাকুন। আমার আগের ছবিগুলোর মতোই এই ছবিটাকেও ভালবাসুন।“  

কঙ্গনা রানাওয়াত ও রাজকুমার রাওয়ের পরবর্তী ছবি মেন্টাল হ্যায় ক্যা আগামী 22শে ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে। মণিকর্ণিকা সম্ভবত আগামী বছর জানুয়ারিতে মুক্তি পাবে।


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement