হোমবলিউড

Saaho Movie Review: কাজে এল না প্রভাস-শ্রদ্ধা ম্যাজিক, নিরাশার 'সাহো'

  | August 30, 2019 19:13 IST
Saaho Review

Saaho Movie Review: এই ছবিতে নায়ক প্রভাস ও নায়িকা শ্রদ্ধা কাপুর, কিন্তু জমলো না রসায়ন। (ছবি সৌজন্য়: শ্রদ্ধা কাপুর)

Saaho Movie Review: না তাঁর হিন্দি ডায়লগ, না তাঁর চরিত্র, কিছু দিয়েই দর্শকের মনে দাগ কাটতে ব্যর্থ Prabhas, নিজের অনুরাগীদের নিরাশ করলেন তিনি। যথাযথ নন ছবির নায়িকা Shraddha Kapoor-ও।

অভিনয়: প্রভাস, শ্রদ্ধা কাপুর, জ্যাকি শ্রফ, নীল নিতিন মুকেশ, চাঙ্কি পান্ডে, মন্দিরা বেদী, এভলিন শর্মা, ভেনেলা কিশোর

পরিচালক: সুজিথ

রেটিং: ১.৫ স্টার (৫ টি স্টারের মধ্যে)

গল্প: পুরো জায়গা জুড়ে। চিত্রনাট্য: পাগল হয়ে গেছে। সম্পাদন: কঠোরভাবে সংখ্যা গুণে গুণে। ফলাফল: ভয়াবহ নৃশংস। সংক্ষেপে, সাহোর মোট যোগফল, প্রায় ৫৫০ কোটি টাকা বাজেটের ছবিটি আসলে অর্থের জলাঞ্জলি। প্রভাস (Prabhas) ও শ্রদ্ধা কাপুরের (Shraddha Kapoor) জুটির নিটফল জিরো। সাহুর রিভিউ (Saaho Review) করতে বসে প্রথমেই বলতে হয় মাত্র একটি ছবি পরিচালনা করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন সুজিতের সাহো ছবিতে প্রায় এক ঘন্টা অবধি কি চলছে কি দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে তাই স্পষ্ট নয়। শুরুতেই বলতে হয় ছবিটি পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। গোটা ছবিতে কেন যে রায়, পৃথ্বীরাজ, দেবরাজ, যুবরাজ, অশোক চক্রবর্তী, অমৃত নায়ার, এবং কল্কি গোপালাচার্যের মতো চরিত্রগুলি আনা হয়েছে তাও স্পষ্ট নয়। পাশাপাশি ওয়াসি ও করানার মতো জায়গাগুলির প্রসঙ্গও যে কেন ছবিতে আনা হয়েছে তাও বোধগম্য হয়নি দর্শকদের। গল্পের বুননও ঠিক নয়। 


দেখুন, গোয়া সি-বিচ কেমন তপ্ত ‘দিয়া'র উষ্ণতায়!

এই ছবির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে "বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ক্রাইম সিন্ডিকেট" যাদের সদর দফতর একটি মেগাপলিসে অবস্থিত। গ্যাংয়ের সম্পদ একটি ভল্টে লক করা আছে যা কেবলমাত্র একটি বিশেষ ডিভাইস দিয়ে অ্যাক্সেস করা যায় - এটিকে ব্ল্যাক বক্স বলা হয় - যেটি আবার মুম্বইয়ের একটি ব্যাঙ্কে লুকানো থাকে। হ্যাঁ, চিত্রনাট্যে মুম্বই একমাত্র জায়গা যা বাস্তব।  গোটা ছবিতে অকারণ বাড়াবাড়ি করে ছবির গল্পকে জড়িয়ে পেচিয়ে জট পাকিয়ে দিয়েছে।

309ehh3o

Saaho Movie Review:ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রভাস ও শ্রদ্ধা কাপুরকে। (ছবি সৌজন্য: অভিনেতা প্রবাস)

সাহো ছবিতে একাধিক দল এই "ব্ল্যাক বক্স" খুঁজছে - মুম্বইয়ের একটি দল, এক মাফিয়া গ্যাং, অপরাধ জগতের  নিয়ন্ত্রণ নিতে চায় এমন একটি বিচ্ছিন্ন গোষ্ঠী এবং নায়ক যে ছবির কারিকুরিতে সবসময়েই অন্যদের থেকে এগিয়ে রয়েছে। গল্পের গরু গাছে উঠে যায় কখনো কখনো, আবার কখনো ধুপ করে সে পড়েও যায়।

ভিডিওয় ধরা পড়লেন মাদকের নেশায় মত্ত ভিকি, দীপিকা, রণবীর, শাহিদ! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এই নেতার

ছবিতে অ্যাকশনের বাড়াবাড়ি দেখে আপনার মানে প্রায় সব দর্শকদেরই মাথা ধরে যাওয়ার জোগাড় হতে পারে।ছবির নির্মাতারা যদি এই অ্যাকশন এবং এসএফএক্সের অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি না করে একটি উপযুক্ত গল্প গড়ে তোলার জন্য বাজেটের ছোট্ট একটি অংশও ব্যবহার করতেন তবে এই ছবিটি এমন জগাখিচুড়ি পাকানোর মতো হতো না।

1auo9ip8

Saaho Movie Review: ছবির নায়ক প্রভাস. (ছবি সৌজন্য: অভিনেতা প্রভাস)

প্রভাসে পর্দায় প্রায় সারাক্ষণ ধরে উপস্থিতি থাকলেও না তাঁর হিন্দি ডায়লগ, না তাঁর চরিত্র, কিছু দিয়েই দর্শকের মনে দাগ কাটতে ব্যর্থ সাহোর নায়ক, যথাযথ নন ছবির নায়িকা শ্রদ্ধা কাপুরও। ক্রাইম ব্রাঞ্চের এক পুলিশ অফিসারের চরিত্রে দেখা গেছে শ্রদ্ধাকে, যাঁকে যখন তখন উপহাস করেন তাঁর বস।

sur4rnr8

Saaho Movie Review: ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রভাস ও শ্রদ্ধাকে (ছবি সৌজন্য:অভিনেতা প্রভাস)

আরও দু'জন মহিলা রয়েছেন ছবিতে - মন্দির বেদী যিনি এখানে অপরাধ সিন্ডিকেটের আইনি উপদেষ্টা এবং এভলিন শর্মা (যিনি একটি কাল্পনিক শহরে একজন পুলিশ কর্মকর্তার ছদ্মবেশে চলচ্চিত্রটির শেষের দিকে উদয় হন) । 'আইটেম গার্ল' হিসাবে দেখা যায় জ্যাকলিন ফার্নান্দেজকে। ছবিতে নীল নিতিন মুকেশ, চাঙ্কি পান্ডে সহ অন্যরাও গল্পে গতি দেওয়ার চেষ্টা করলেও তা মন ছুঁতে ব্যর্থ হয়।


সাহো দেখতে দেখতে আপনার হয়তো এটাই মনে হতে পারে যে প্রভাস কেন এই ছবিটাকে বাছলেন। যাঁরা বাহুবলীর রেশ নিয়ে সাহো দেখতে যাবেন তাঁরা যে হাতে হ্যারিকেন নিয়ে ফিরে আসবেন তা বলাই বাহুল্য। 


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement