হোম

'তারিখ' ট্রেলার: সময়রেখা বদলে বদলে যায়...

  | March 09, 2019 09:28 IST
Tarikh

তারিখের ট্রেলারের একটি দৃশ্য। (সৌজন্যে ইউটিউব)

চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়ের নতুন ছবি ‘তারিখ’। ট্রেলারটি মুক্তি পেল আজ। এই ‘টাইমলাইন’ রয়ে গেল গোটা ট্রেলারটি জুড়ে। সেটি নিজেই যেন সবথেকে জরুরি চরিত্র। ১ মিনিটের কিছু বেশি সময়ের ট্রেলারে রয়েছে একেকটি বদলে যাওয়া দিনের আনোখা রহস্য।

প্রতিটা নতুন দিনই জন্মদিন। এমন একটি কথা প্রায়শই শোনা যায় বন্ধুবান্ধবদের মুখে। কথাটিকে আরও বিস্তৃত এবং আপাত-সরল অর্থে ধরলে, যা উঠে আসে, তার নিহিতার্থটি হল- প্রতিটা দিনই নতুন দিন। অর্থাৎ, গতকাল যত বিদ্বেষই থাকুক না কেন, যত দলাদলি, মারামারি এবং হিংসাই থাকুক না কেন, সূর্য ঠিক প্রতিদিনের মতোই পনেরো কোটি কিলোমিটার থেকে  আলো পাঠিয়ে যাবে। সমুদ্রের যেটুকু জল ফেনা তুলে পাড় থেকে ফিরে গিয়েছিল, তা ফের আবার পাড়ে চলে আসবে প্রতিদিনের মতোই। এ যেন মৃত্যুর পরেই ফের আরেকবার জন্মে ওঠা। শরীরের কোটি কোটি কোষের মধ্যে বহু কোষ প্রতিদিন মরে যায়। পরদিন তার জায়গায় তৈরি হয়ে যায় কিছু নতুন কোষ। অর্থাৎ, আগের দিনটির মতোই, আগের দিনের মনটির মতোই, আগের দিনের শরীরটিও আর আজ নেই। কত মায়া গিঁথে থাকে এর মধ্যে! রাগ, দুঃখ, অভিমান, কান্না, আঁকড়ে ধরা, ছুঁড়ে ফেলা- কিছুই ফেলার নেই। কিছুই ফেলে দেওয়ার নয়। ঘরের জানলার বাইরে অন্ধকার। সেখানে শূন্যতা তার সত্যতম রূপ নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে একা। শূন্যতা আর জানলার মাঝে কখন যেন এসে দাঁড়াল ভাম বিড়াল। প্রকৃতি আর কালো দেওয়ালের মধ্যে ব্রহ্মময়ীই এল যেন! 

এসব দেখে ভালোলাগে। ফেসবুক দেখে লাগে যেমন ইদানীং। কত কোটি মানুষ এখানে! যে যার নিজের মতো বা খানিকটা অপরের মতোই যেন- রয়েছে। রয়েছে তো! কয়েকটা জেলা মিলে একটা রাজ্য, রাজ্য মিলে দেশ, আর অনেক অনেক দেশ মিলে একটা ফেসবুক। বন্ধু, শত্রু, দুপুরের খাবার, রাতের নিন্দা, ভোররাতের নির্বিকারতা (যদিও তা খুব খারাপ জিনিস)- সবই এখান থেকে।

আরও পড়ুনঃ প্রেমে পড়তে বারণ করলেও অধিকাংশ বারণই কেউ শোনে নাঃ রণজয় ভট্টাচার্য

তারার মতো ভেসে রয়েছি সকলেই এর মধ্যে। কেউ কেউ কত আলোকবর্ষ আগে মৃত, কেউ খসে পড়ল এইমাত্র, কেউ সূর্য- সৌরজগতের নায়ক হয়ে প্রাজ্ঞ পৃথিবীর স্বপ্নের রন্ধ্রে নিয়ত ঢেলে দিচ্ছে আদি-শৈত্য অন্ধকার অথবা আত্মমগ্ন-উষ্ণ আলো। ফেসবুক বহু অর্থেই এখন আমাদের নতুন আকাশ। বিদঘুটে স্বপ্নচারী কোনও বুকনি নয় আর সে। 


সময়, দিন ও ফেসবুক- এই তিনজনকে একই সরলরেখায় রাখলে উঠে আসে একটি অতি পরিচিত শব্দ- টাইমলাইন।

চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়ের নতুন ছবি ‘তারিখ'। ট্রেলারটি মুক্তি পেল আজ। এই ‘টাইমলাইন' রয়ে গেল গোটা ট্রেলারটি জুড়ে। সেটি নিজেই যেন সবথেকে জরুরি চরিত্র। ১ মিনিটের কিছু বেশি সময়ের ট্রেলারে রয়েছে একেকটি বদলে যাওয়া দিনের আনোখা রহস্য। খুব ছোট ট্রেলারটি দেখে আপাতদৃষ্টিতে বোঝা গেল এটুকুই। ছবিটি কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বিশেষ জুরি পুরস্কার পেয়েছিল। চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রথম ছবি ‘নির্বাসিত' মুক্তি পাওয়ার পরে বোঝা গিয়েছিল, তিনি নতুন কথাই বলতে এসেছেন। নতুনভাবে বলতে এসেছেন। ‘তারিখ'-এর ট্রেলারটি দেখেও তেমনটাই মালুম হল। তবে, ট্রেলার তো এখন সব ছবিরই বেশ মনোহর হয়। মূল ছবিটি কেমন হল, অপেরা প্রোডাকশন প্রযোজিত ও সুপর্ণকান্তি করাতি নিবেদিত এই ছবিটিতে কেমনইবা অভিনয় করলেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, ঋত্বিক চক্রবর্তী, রাইমা সেন, জুন মালিয়ার মতো অভিনেতারা, তা জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত। ছবিটি ওইদিনই প্রেক্ষাগৃহে আসছে কি না!


 


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
Advertisement
Advertisement
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com