হোমবলিউড

বিক্রির মুখে রাজ কাপুরের আরকে স্টুডিও- “কোনও উপায় নেই” জানিয়েছেন রণধীর

মুম্বাইয়ের চেম্বুরে 1948 সালে রাজ কাপুর কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয় আরকে স্টুডিও। গত বছর বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে নষ্ট হয়ে যায় স্টুডিওটি"

  | August 30, 2018 16:07 IST (নিউ দিল্লি)
Rk Studio Sale

মুম্বাইতে স্ত্রী ববিতা ও বড় মেয়ে করিশ্মার সঙ্গে রণধীর কাপুর

Highlights

  • আগুন লাগার পরে পুরোটাই নষ্ট হয়ে যায়- রণধীর কাপুর
  • "খুব কষ্ট করেই আমাদের এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।"- বলেন তিনি
  • রাজ কাপুর 1948 সালে প্রতিষ্ঠা করেন আরকে স্টুডিও

বিক্রি হয়ে যেতে চলেছে রাজ কাপুরের স্মৃতি বিজড়িত বিখ্যাত আরকে স্টুডিও। অভিনেতা রাজ কাপুরের জ্যেষ্ঠ পুত্র রণধীর কাপুর বলেন যে, "আর্থিক ক্ষতির চেয়ে পরিবারের মানসিক ক্ষতির পরিমাণ অনেক বেশি।" মুম্বাইয়ের চেম্বুরে 1948 সালে রাজ কাপুর কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয় আরকে স্টুডিও। গত বছর বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে নষ্ট হয়ে যায় স্টুডিওটি। রণধীর কাপুর বলেন, "আগুন লাগার পর পুরো জায়গাটি ভেঙে ফেলার জন্য আমাদের আর্থিক ক্ষতির চেয়ে বেশি মানসিক ক্ষতি হয়েছে। রাজ কাপুরের সমস্ত স্মৃতি আমরা হারিয়েছি। সব শেষ হয়ে গেছে।"

 

 


গত সপ্তাহের শেষেই ঋষি কাপুর জানান যে তাঁরা স্টুডিও বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রণধীর কাপুর বলেন, "এখানের রাস্তার যা অবস্থা এবং যা ট্রাফিক তা পেরিয়ে কোনও অভিনেতাই চেম্বুরে এই স্টুডিওতে শ্যুটিং করতে আসেন না, বরং তাঁরা ফিল্ম সিটিতে চলে যেতে চান। তাই খুব কষ্ট হলেও আমরা এটা ছেড়ে দেওয়ারই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার পুরো পরিবারই খুব দু:খিত, কিন্তু অন্য কোন উপায়ও নেই।"

 

রাজ কাপুরের মৃত্যুর পর, রণধীর কাপুর স্টুডিওর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। 1948 সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘আগ’ ছিল আরকে ফিল্মসের প্রথম প্রোডাকশন। দ্বিতীয় সিনেমা ছিল ‘বরসাত’।

 

আর কে স্টুডিও বিক্রির বিষয়ে ঋষি কাপুর মুম্বাইয়ের মিররকে বলেছেন, "স্টুডিওটি পুনর্নির্মাণে বিনিয়োগ করলেও লাভ হচ্ছিল না। বিশ্বাস করুন, আগুল লাগার আগেও এই স্টুডিও থেকে কোনও লাভই ছিল না আমাদের। কোনও বুকিং হত না। যে ক’টা সিনেমা বা  টেলি শোয়ের বুকিং পেতাম তাদেরও ফ্রি পার্কিং এরিয়া, এয়ার কন্ডিশনিং আর ছাড়ের দাবি থাকত।

 

 

 

এদিকে রণধীর কাপুরের কন্যা করিনা কাপুর অবশ্য স্টুডিও বিক্রি সম্পর্কে বিশেষ কিছুই জানেন না। তিনি জানিয়েছেন, "আমি জানি না আসলে আসলে কী ঘটছে। আমি বিষয়টার মধ্যে ছিলাম না, বাবার সঙ্গেও গত চার পাঁচ দিন দেখা হয়নি। এরকম যদি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই সেটা পরিবারের সিদ্ধান্ত। আমরা সবাই ওই স্টুডিওকে ঘিরেই বড় হয়েছি। তবুও, আমি মনে করি হয়তো এমন কিছু বিষয় রয়েছে যে কারণে পরিবার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পুরোটাই আমার বাবা এবং তাঁর ভাইদের সিদ্ধান্ত।"


বাংলা ভাষায় বিশ্বের সকল বিনোদনের আপডেটস তথা বাংলা সিনেমার খবর, বলিউডের খবর, হলিউডের খবর, সিনেমা রিভিউস, টেলিভিশনের খবর আর গসিপ জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube
 
Advertisement
Advertisement